এবার কর্মী ছাঁটাই করবে রোবট
এবার কর্মী ছাঁটাই করবে রোবট
২০১৬-০১-২৬ ১৩:৪১:২৯
প্রিন্টঅ-অ+


প্রযুক্তি যেভাবে সামনের দিকে যাচ্ছে তাতে ২০২৫ সালে বেশ কিছু অভাবনীয় ডিভাইস আসতে পারে প্রযুক্তির বাজারে।

ডেইলি মেইলের এক রিপোর্টে বলা হয়, শরীরের সাথে লাগানো মোবাইল ফোন, থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি করা মানব শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ যেগুলো শরীরে স্থাপন করা যাবে এমন সব নতুন নতুন প্রযুক্তির সাথে ২০২৫ সালে পরিচিত হতে যাচ্ছি আমরা।

বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে বলা হয়েছে, এসব প্রযু্ক্তিতে এখন বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী মনে হলেও ২০২৫ সালের মধ্যে এইসব কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার আরও উন্নয়ন ঘটবে।

মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী সেটায়া নাদেলা বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব তৈরি করতে যাচ্ছে একটি অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি।’

শিল্পে রোবট ব্যবহার ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। ঘরে বসেই মানুষ এখন তার কারখানা পরিচালনা করতে পারে। এমনকি যুদ্ধক্ষেত্রও নিয়ন্ত্রণ করছে ড্রোন প্রযুক্তির মাধ্যমে।

তবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা অর্থাৎ রোবটের ব্যবহার মানুষের বেকারত্বের হার আরও বাড়াবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে গবেষকরা। তাদের ধারণা আগামী ১৫ বছরের মধ্যে রোবটের ব্যবহার প্রায় ৫১ লক্ষ মানুষকে কর্মহীন করবে। এর ভুক্তভোগী সবচেয়ে বেশি হবে নারীরা।

এই বছর বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ব্যক্তিটি কোনো কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রধান কিংবা কোন রাজনীতিবিদও ছিল না। সবচেয়ে আকর্ষণীয় ছিল এবার কোরিয়ার তৈরি হুবো রোবটটি। সবাইকে স্মার্ট ফোনে তার সাথেই সবচেয়ে বেশি ছবি তুলতে দেখা গেছে ।

প্রযুক্তির অতিরিক্ত আধুনিকায়নের একটা পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়াও রয়েছে। অর্থনৈতিক ফোরামের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, শিল্পক্ষেত্রে রোবটের ব্যবহার উন্নত এবং অনুন্নত অর্থনীতিতে আরও দূরত্ব তৈরি করবে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৩ সালের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছিল, যদি শিল্পে সম্পূর্ণভাবে রোবটের ব্যবহার করা হয়, তবে ৪৭ শতাংশ মার্কিন নাগরিকের চাকরি ঝুঁকিতে রয়েছে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর