আবিষ্কার হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মৌলিক সংখ্যা
আবিষ্কার হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মৌলিক সংখ্যা
২০১৬-০১-২২ ১২:৪৪:৫৪
প্রিন্টঅ-অ+


মানুষের জানা বিশ্বের সবচেয়ে বড় মৌলিক সংখ্যার দাবীদার এখন নতুন একটি সংখ্যা আর এটি আবিষ্কার করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অফ সেন্ট্রাল মিসৌরি। একটি কম্পিউটারের সহায়তায় এই মৌলিক সংখ্যাটি খুঁজে বের করা হয়।

যেসব সংখ্যা শুধু ওই সংখ্যা আর ১ ছাড়া অন্য কোনো সংখ্যা দিয়ে নিঃশেষে ভাগ করা যায় না সেগুলোই মৌলিক সংখ্যা। যেমন ২,৩,৫,৭ এগুলো মৌলিক সংখ্যা। কম্পিউটার এনক্রিপশনের ক্ষেত্রে এই মৌলিক সংখ্যাগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

নতুন এই মৌলিক সংখ্যাটি ২ কোটি ২০ লাখেরও বেশি অঙ্ক বা ডিজিট বিশিষ্ট। যা এর আগের সর্ববৃহৎ মৌলিক সংখ্যার তুলনায় ৫০ লক্ষ অঙ্ক বেশি। নতুন এই মৌলিক সংখ্যা ভবিষ্যতে গণনার ক্ষেত্রে আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বিশ্বব্যাপী একটি বিশেষ ধরনের বৃহত্তর মৌলিক সংখ্যা খুঁজে বের করার প্রতিযোগিতা ‘গ্রেট ইন্টারনেট মারসিনি প্রাইম সার্চ’ (গিম্পস)-এর অংশ হিসেবে এই মৌলিক সংখ্যা আবিষ্কার করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়টি। সপ্তদশ শতাব্দীতে একজন ফরাসি সন্ন্যাসী এগুলো নিয়ে গবেষণার পর এই বৃহৎ মৌলিক সংখ্যাগুলোর নাম দেওয়া হয় ‘মারসিনি প্রাইম’।

নতুন আবিষ্কৃত এই মৌলিক সংখ্যা হচ্ছে ২^৭৪২০৭২৮-১। এর মানে হচ্ছে ২-এর এর ঘাত ৭৪২০৭২৮০ হওয়ার পর যে সংখ্যা পাওয়া যাবে তা থেকে ১ বিয়োগ করলেই পাওয়া যাবে কাঙ্খিত এই সংখ্যা। নতুন এই ৪৯ তম মারসিনি প্রাইম সংখ্যাই আবিষ্কার করেন ইউনিভার্সিটি অফ সেন্ট্রাল মিসৌরি’র ড. কার্টিস কুপার।

গিম্পস প্রকল্পটি ২০ বছরে ১৫টি মারসিনি প্রাইম বের করেছে। এখনও গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে তারা।

এই বড় মৌলিক সংখাগুলো কম্পিউটার এনক্রিপশনের জন্য অত্যন্ত জরুরি। এটি অনলাইন ব্যাংকিং, গোপন বার্তা এবং অনলাইন কেনকাটার মতো সেবাগুলো নিরাপদ করে। কিন্ত এক্ষেত্রে বর্তমানে যে এনক্রিপশন ব্যবহার করা হয়ে থাকে সেগুলো সাধারণত একশ অংকের মৌলিক সংখ্যা হয়ে থাকে। গিম্পস-এর পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, “ব্যবহারিক মূল্যের জন্য এই মৌলিক সংখ্যাগুলো এখন অনেক বড়।”

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিবিধ এর অারো খবর