শিক্ষকদের পিঠা উৎসবে ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী
শিক্ষকদের পিঠা উৎসবে ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী
২০১৬-০১-১৮ ১৫:১০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নিয়ে আলাদা বৈঠক নয় বরং গণভবনে আয়োজিত পিঠা উৎসবে তাদের নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে রবিবার প্রধানমন্ত্রী পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের গণভবনে নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন বলে বিভিন্ন সংবাদ গণমাধ্যমে খবর প্রচার হয়। ফলে সবাই ধারণা করে নেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতির বিষয়ে কথা বলতেই প্রধানমন্ত্রী তাদের ডেকেছেন।

যদিও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি এবং মহাসচিব বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী তাদের চা চক্রের দাওয়াত দিয়েছেন, তাদের কর্মবিরতি নিয়ে কোনও আলোচনা হবে কিনা সে বিষয়ে তাদের কোনও ধারণা নেই। তবে প্রধানমন্ত্রী যদি এ বিষয়ে কোনও কথা বলেন তাহলে তারা অবশ্যই এটি নিয়ে আলোচনা করবেন।

শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের মহাসচিব এএসএম মাকসুদ কামাল বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমাদেরকে প্রধানমন্ত্রী চায়ের দাওয়াত দিয়েছেন, সঙ্গে আরও অনেককেই দিয়েছেন।’

অন্যদিকে শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি ড. ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমরা রওনা দিয়েছি প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের উদ্দেশ্যে। শুধু আমি নেই, ফেডারেশনের সবাই এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সবাই আমরা একসঙ্গে রওনা দিয়েছি।’

ওখানে কোনও আলোচনা হবে কিনা জানতে চাইলে ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘শুধু আমরা নই, হাজার হাজার মানুষ থাকবে পিঠা উৎসবে। সেখানে কী আর এসব বিষয় নিয়ে কথা বলা সম্ভব হবে। তবে যদি প্রধানমন্ত্রী কিছু বলেন তাহলে আমরা আমাদের দাবি সম্পর্কে কথা বলবো।’

উল্লেখ্য, মর্যাদা ও বেতন প্রশ্নে বিভিন্ন পর্যায়ে আন্দোলনের পর ১১ জানুয়ারি থেকে লাগাতার কর্মবিরতি পালন করে আসছেন দেশের ৩৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। গত ২ জানুয়ারি এই লাগাতার কর্মবিরতির ঘোষণা দেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সবকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকরা এ কর্মসূচি পালন করছেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

শিক্ষা এর অারো খবর