জাতীয় পরিচয়পত্রের আঙুলের ছাপ মিলছে না
জাতীয় পরিচয়পত্রের আঙুলের ছাপ মিলছে না
২০১৬-০১-১৬ ১৬:১০:২৩
প্রিন্টঅ-অ+


নির্বাচন কমিশনের ডাটাবেজে সংরক্ষিত আঙুলের ছাপের সঙ্গে অধিকাংশ জাতীয় পরিচয়পত্রধারীর আঙুলের ছাপ মিলছে না। ঘটনাটি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার। সরকারি নির্দেশে বায়োমেট্রিক্স পদ্ধতিতে সিম রেজিস্ট্রেশন করতে গিয়ে এই অসামঞ্জস্যতা দেখা দিয়েছে।

শ্রীপুরে সিম রেজিস্ট্রেশনকারী বিভিন্ন আউটলেট কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ২০০৭ সালে ইস্যুকৃত জাতীয় পরিচয়পত্রগুলোতেই আঙুলের ছাপের অসামঞ্জস্যতা বেশি দেখা যাচ্ছে।

জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণায় ও বিটিআরসির সমন্বিত নির্দেশে প্রত্যেক নাগরিকের বায়োমেট্রিক্স পদ্ধতিতে সিম রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

জানুয়ারিতে শুরু হওয়া নিবন্ধন প্রক্রিয়া একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত বেধে দেয়া হয়। এই সময়ের মধ্যে সিম নিবন্ধন সম্পন্ন না হলে, বন্ধ হয়ে যাবে গ্রাহকের অনিবন্ধিত সিম। ফিঙ্গারপ্রিন্ট জটিলতার কারণে সিম বন্ধের শঙ্কায় আছেন শ্রীপুরের অসংখ্য জাতীয় পরিচয়পত্রধারীরা।

শ্রীপুরের মাওনা চৌরাস্তার লুৎফর রহমান, সোহাগ মিয়া, জাহাঙ্গীর আলম জানান, ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচন কমিশন কর্মকর্তার কার্যালয়ে তাদের জাতীয় পরিচয় হাল নাগাদ করা হয়েছে তবুও সিম রেজিস্ট্রেশনের সময় তাদের ফিঙ্গার প্রিন্টে অসামঞ্জস্যতা দেখাচ্ছে।

উপজেলার বিভিন্ন বায়োমেট্রিক্স আউটলেটে ফিঙ্গারপ্রিন্ট জটিলতার শিকার মোবইল সংযোগের গ্রাহকেরা হতাশা প্রকাশ করে বলেন- নির্দিষ্ট সময়ের আগে নিবন্ধন করতে না পারলে সিম চালু থাকবে কি না এ শঙ্কায় আছেন তারা।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা খন্দকার জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, এ বিষয়ে অনেক অভিযোগ আসছে। অভিযোগের বিষয়গুলো নির্বাচন কমিশনে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে নির্বাচন কমিশন ছবি যুক্ত ভোটার আইডি কার্ড তৈরির উদ্দেশ্যে শ্রীপুর উপজেলায় পাইলট প্রকল্প শুরু করে। সে সময় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহযোগীতায় উপজেলার বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ডাটা এন্ট্রি অপারেটররা ভোটারদের তথ্য ও ছবি সংগ্রহ করে। পরে সারা দেশে এই কার্যক্রম পরিচালনা করে নির্বাচন কমিশন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিশেষ প্রতিবেদন এর অারো খবর