৩৮তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় কাট মার্কস কত হবে?
৩৮তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় কাট মার্কস কত হবে?
২০১৮-০১-০৩ ০০:৫৩:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+


বর্তমানে বিসিএস পরীক্ষার্থীদের আলোচনার একমাত্র ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় কাট মার্কস কত হবে। এ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার যেন শেষ নেই। লাইব্রেরি থেকে শুরু করে রিডিং রুম, বিশ্ববিদ্যালয়ের হল, চায়ের আড্ডা সব জায়গাতেই এখন এক আলোচনা কাট মার্কস। পরীক্ষার আগ পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের নির্ঘুম চোখ দুটোতে এখনও যেন ঘুম নেই কাট মার্কসের চিন্তায়।

বিসিএসের প্রশ্নপত্র বিশ্লেষণ, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা, বিগত কয়েকটি বিসিএসের পর্যালোচনা করে কেউ মনে করছেন কাট মার্কস ১০০ হতে পারে, আবার কেউ বলছেন ৯৫ থেকে ১০০ নম্বরের মধ্যে থাকলেই চলবে। তবে বিষয়টি তাদের অভিজ্ঞতালব্ধ ধারণা মাত্র। সেক্ষেত্রে পিএসসি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবে বলে মনে করছেন তারা।

পিএসসির নির্ভরযোগ্য সূত্র বলছে, রেজাল্ট প্রসেস হওয়ার সময় কমিশনের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে কী পরিমাণ পরিক্ষার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেবে এবং কাট মার্কস কত হবে।

সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান মনে করছেন প্রশ্নের ধরণ ও পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বিবেচনা করে কাট মার্কস ৯৯ কিংবা ১০০ হতে পারে। তবে ২০ হাজার পরীক্ষার্থী নিলে কাট মার্কস ৯৬ থেকে ৯৫ হতে পারে। পরীক্ষার্থী যদি ১০ হাজার নেয় সেক্ষেত্রে নম্বরের হারটা বেড়ে ১০৫ হতে পারে।

তিনি বলেন: প্রশ্ন দেখে যতোটা সহজ মনে হচ্ছে অাসলে ততোটা সহজ হয়নি। তবে যে প্রশ্ন হয়েছে তাতে একজন পরিক্ষার্থী ৯৯ টা প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে ভালোভাবে।

প্রশ্নপত্রের বিষয়ে তিনি আরও বলেন: প্রশ্ন সহজও নয় আবার কঠিনও নয়, খুব মান সম্পন্ন হয়েছে। তবে সার্বিক বিবেচনায় পিএসসিই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবে কাট মার্কস কত হবে।

বিসিএসের আরেকটি কোচিং এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বেলাল আহমেদ রাজু অবশ্য এক্ষেত্রে ভিন্নমত পোষণ করেছেন। তিনি বলছেন: ১২ থেকে ১৫ হাজার পরীক্ষার্থী পাশ করালে ১১০ নম্বরের উপরে যারা পাবে তাদের সফল হবার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। ৩৬তম বিসিএসে ২ হাজার ১শ’ ০৮টি পদের বিপরীতে পিএসসি ১০ হাজার ৮’শ ২৩ জন পরীক্ষার্থীকে নিয়েছে।

৩৭তম বিসিএসে ১ হাজার ২শ’ ২৮ টি পদের বিপরীতে লিখিত পরীক্ষার জন্য নির্বাচন করা হয় ৮ হাজার ৫শ’ ৩০ জনকে। সেই হিসেবে ৩৮ তম বিসিএসে পদ সংখ্যা কিছুটা বেশি হওয়ায় ১১০ এর উপরে যাদের নম্বর থাকবে তাদের সফলতার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে সবকিছু বিবেচনা করে পিএসসিই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবে কাট মার্কস কত হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বিসিএস সংক্রান্ত একটি কোচিংয়ের পরিচালক ও দীর্ঘদিন ধরে বিসিএস নিয়ে কাজ করে যাওয়া জিয়াউল ইসলাম জয় বলছেন: কাট মার্কস ৯৫ থেকে ১০০ এর মধ্যে থাকতে পারে।

এ বিষয়ে দু’টি কারণ উল্লেখ করে তিনি বলেন: ৩৫, ৩৬, ও ৩৭তম বিসিএসের চেয়ে ৩৮তম বিসিএসে পদসংখ্যা অনেক বেশি। আর তাই এবার বিগত বিসিএসের চেয়ে বেশি পরিমাণ পরীক্ষার্থী প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় পাশ করানোর একটা সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রশ্নপত্রের বিষয়ে তিনি বলেন: পরীক্ষার হল থেকে বের হওয়ার সময় পরীক্ষার্থীদের নিকট প্রশ্নপত্র যতোটা সহজ হয়েছে বলে মনে হয়ছে। আসলে কিন্তু প্রশ্নপত্র ততোটা সহজ হয়নি। সময় যতো গড়িয়েছে মার্কস ততো কমেছে। যে পরিক্ষার্থী হল থেকে বেরোনোর সময় ভেবেছেন তিনি ১৫০ পাবেন বাড়ি পৌঁছতে পৌঁছতে তার ৪০ নম্বর কমে গেছে। রাত হতে হতে সে নম্বর ১০০ তে গিয়ে ঠেকেছে। আর এ সংখ্যা নেহাত কম নয়।
(আফরিন আপ্পি)

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

শিক্ষা এর অারো খবর