আজ থেকে শুরু হচ্ছে ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা
আজ থেকে শুরু হচ্ছে ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা
২০১৮-০১-০১ ০২:৫৪:০৫
প্রিন্টঅ-অ+


বছরের প্রথম দিন আজ থেকে শুরু হচ্ছে ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাসব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করবেন। এবারের বাণিজ্য মেলায় ছোট বড় মিলিয়ে সর্বমোট ৫৮৯টি স্টল ও প্যাভিলিয়ন থাকবে। এর মধ্যে বিভিন্ন ক্যাটাগরির মোট প্যাভিলিয়ন থাকবে ১১২টি। ৭৭টি মিনি প্যাভিলিয়ন ছাড়াও থাকবে ৪০০টি স্টল। এবারের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ১৭টি দেশের মোট ৪৩টি প্রতিষ্ঠানের স্টল বা প্যাভিলিয়ন থাকবে। এছাড়া দর্শনার্থীদের বিনোদনের জন্য থাকছে ২টি শিশুপার্ক ও সুন্দরবনের আদলে একটি ইকোপার্কও তৈরি করা হয়েছে।

রবিবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে মেলা কমিটির সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। ওই সময় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, মাসব্যাপী বাণিজ্য মেলায় প্রতিবছর উৎসবমুখর পরিবেশে রাজধানীর মানুষ অংশ নেন। আর এটা শুধু আমাদের রফতানি-ই বাড়ায় না, মানুষের বিনোদনের অন্যতম কেন্দ্রেও পরিণত হয়। প্রতিদিনই লাখ লাখ মানুষ মেলায় ঘুরতে আসেন। তাই ক্রেতা-দর্শনার্থীদের নিরাপত্তায় মেলায় পুলিশ ও র‌্যাবের ওয়াচ টাওয়ারসহ বিভিন্ন সেবা সংস্থার সর্বমোট ৬০টি অবকাঠামো ও সেবা কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, মেলা প্রাঙ্গণে পর্যাপ্ত আনসার ও ভিডিপি, পুলিশ, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, বিজিবি এবং র‌্যাব নিয়োজিত থাকবে। আগত দর্শনার্থীদের যেকোন অভিযোগ পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে মেলা প্রাঙ্গণে সার্বক্ষণিক একজন ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। সার্বক্ষণিক মেলা প্রাঙ্গণ পর্যবেক্ষণের জন্য ১০০টি সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, মেলায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের গাড়িসহ বাহিনীর সদস্য এবং স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে রোভার স্কাউটের সদস্যরা নিয়োজিত থাকবেন। এবারের মেলার নতুনত্ব নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মেলার সম্পূর্ণ ভেন্যুকে পর্যায়ক্রমে ৩৬০ ডিগ্রী ভার্চুয়াল ট্যুরের আওতায় আনা হবে। থাকবে গুগল স্ট্রিট ভিউ ও ওয়েবসাইট ও ফেসবুকে দেশ-বিদেশ থেকে মেলা ভ্রমণের অনন্য অভিজ্ঞতা উপভোগের ব্যবস্থাও।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মেলায় পদ্মাসেতুর আদলে গেট করার কারণ হচ্ছে-এটি আমাদের গর্ব। নিজস্ব অর্থায়নে এই সেতু নির্মিত হচ্ছে। এটি মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতেই এ গেট করা হয়েছে। আজ থেকে শুরু হওয়া এ মেলা চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। মেলায় প্রবেশ ফি প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৩০ টাকা ও অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন ক্রেতা-দর্শনার্থীরা। সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বসু ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য্য প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, বাংলাদেশের পাশাপাশি এবার থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভাারত, পাকিস্তান, হংকং, সিঙ্গাপুর, মরিশাস ও দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যবসায়ীরা মেলায় অংশগ্রহণ করবে। মেলার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে-দেশী-বিদেশী ভোক্তাগণকে বিভিন্ন পণ্য ও সেবার সঙ্গে পরিচিত করা, ক্রেতা ও বিক্রেতার সংযোগ সৃষ্টি করা, উৎপাদনকারীদের মধ্যে প্রতিযোগিতা সৃষ্টি করে গুণগত মান বৃদ্ধি করা। বাংলাদেশের তুলনামূলক সুবিধা সম্পর্কে বিদেশী অংশগ্রহণকারী ও পরিদর্শনকারীদের অবহিতকরণ। নতুন নতুন শিল্প স্থাপনে উদ্যোক্তাকারীদের উৎসাহিতকরণ এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা।

খাবারের দাম বেশি নেয়া হলে জরিমানা ॥ মেলার প্রথমদিন থেকেই বাণিজ্যমেলা কেন্দ্রে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর কাজ শুরু করবে। মেলায় আগত ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষণে নজর রাখবে সরকারী এ সংস্থাটি। বিশেষ করে খাবারের দাম বেশি নেয়া হলে জরিমানা করা হবে। প্রতিবছরই মেলায় খাবারের দাম বেশি নেয়া হয় এ ধরনের অভিযোগ থেকে এবার প্রথমদিন থেকেই তৎপর থাকবে ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর। এছাড়া মেলায় ছিনতাই, ইভটিজিং, চুরি এবং অন্যান্য অপকর্ম করলে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে মেলা কমপ্লেক্সের অস্থায়ী হাজতখানায় বন্ধি করা হবে। এছাড়া খাদ্যদ্রব্যের মান নিয়ন্ত্রণে ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর নিয়োজিত ম্যাজিস্ট্রেট ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যসহ গঠিত টিম মেলা চলাকালে প্রতিদিন ভেজালবিরোধী অভিযান পরিচালনা করবে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

অর্থনীতি এর অারো খবর