বিজয় দিবস নেই ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে, শহীদ মিনারে ফুলও দেওয়া হয়নি
বিজয় দিবস নেই ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে, শহীদ মিনারে ফুলও দেওয়া হয়নি
২০১৭-১২-১৮ ০০:২৭:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+


দেশজুড়ে নানা আয়োজনে পালিত হয়েছে মহান বিজয় দিবস। দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও দিবসটি পালিত হয়েছে যথাযোগ্য মর্যাদায়। তবে ব্যতিক্রম কেবল সিলেট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ।

নগরীর বালুচরের এই প্রতিষ্ঠানটিতে বিজয় দিবস উপলক্ষে কোনো কর্মসূচি পালন করা হয়নি। এমনকি কলেজের শহীদ মিনারে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি পুষ্পস্তবকটুকুও অর্পণ করা হয়নি। এজন্য শিক্ষার্থীরা দুষছেন কলেজ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের।

সিলেট শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা গেছে, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিজয় দিবস পালন বাধ্যতামূলক। শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন ছাড়াও শিক্ষার্থীদের নিয়ে দিনব্যাপী আয়োজনের নির্দেশনা রয়েছে।

তবে শনিবার বিজয় দিবসে সে নির্দেশনা পালন করেনি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ কর্তৃপক্ষ। বিজয় দিবসের সারাদিন ক্যাম্পাসে বিজয় দিবসের কোনো আয়োজন ছিলো না। এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিলে শনিবার সন্ধ্যায় তড়িঘড়ি করে ক্যাম্পাসে বিজয় দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করে কলেজ প্রশাসন। তবে এতে অংশ নেননি বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই।

কলেজ শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, প্রশাসনের অনাগ্রহেই বিজয় দিবসের কোনো কর্মসূচি পালন হয়নি ক্যাম্পাসে। কলেজের ভেতরে একটি শহীদ মিনার থাকলেও তাতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়নি।

২০০৮ সালে এই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়। তবে ৯ বছর পেরিয়ে গেলেও এখানে এখন পর্যন্ত নেই স্থায়ী কোনো শিক্ষক। রয়েছে কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ আরও নানা সঙ্কট। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক দিয়ে চলছে এ কলেজের কার্যক্রম। বর্তমানে সিলেট পলিটেকনিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্বে রয়েছেন।

কলেজের একাধিক শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও রেজিস্ট্রারের অনাগ্রহের কারণে বিজয় দিবস পালিত হয়নি। পাশের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোকসজ্জ্বা করা হলেও এখানে সেরকম কিছু করা হয়নি। শহীদ মিনারটি পরিচ্ছন্ন পর্যন্ত করা হয়নি। দিনভর ছিলো না কোনো আয়োজন।

তাদের অভিযোগ, কেবল বিজয় দিবস নয়, বিভিন্ন জাতীয় দিবসে শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠান করতে চাইলেও কলেজ প্রশাসন থেকে অসহযোগিতা করা হয়।

কলেজ ছাত্রলীগের নেতা মৃত্যুঞ্জয় দেবনাথ বলেন, বিজয় দিবস পালনের জন্য আমরা একাধিকবার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের সাথে আলোচনা করতে চাইলেও তিনি আমাদের সাথে কোনো কথা বলেননি। সারাদিন ক্যাম্পাসে বিজয় দিবসের কোনো আয়োজন করা হয়নি। আমরা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে ফুল দিলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়নি। সন্ধ্যায় কেবল একটি আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের রেজিস্ট্রার সেলিম আহমদ বলেন, শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন বা দিনে কোনো অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি। তবে সন্ধ্যায় কলেজে বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করা হয়েছে।

কেন সম্ভব হয়নি তা জানার জন্য কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন তিনি।

তবে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুল্লাহর সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁর মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিবিধ এর অারো খবর