আসছে অ্যাপভি‌ত্তিক সিএন‌জি অটোরিকশা
আসছে অ্যাপভি‌ত্তিক সিএন‌জি অটোরিকশা
২০১৭-১১-১৯ ১৯:০৮:৩৯
প্রিন্টঅ-অ+


সিএন‌জি অটোরিকশা‌কে অ্যা‌পের মাধ্যমে সেবা দি‌তে প্রস্তুত সরকার। অ্যাপভি‌ত্তিক সেবার বি‌রো‌ধিতা নয়, অ্যা‌পেই সিএন‌জি অটোরিকশা চালা‌বেন চালকরা। এমন সিদ্ধান্ত নি‌য়ে স্মার্টফোনের ব্যবহার শিখ‌ছেন তারা। প্রাথ‌মিকভা‌বে হ্যা‌লো সিএন‌জি না‌মে এক‌টি অ্যাপ প্রতিষ্ঠা‌নের স‌ঙ্গে তা‌দের কথা হ‌য়ে‌ছে। আগামি দেড়মা‌সের ম‌ধ্যে অ্যা‌পেই সেবা দি‌তে চালকরা ট্রে‌নিং নেওয়া শুরু ক‌রে‌ছেন। এ সিদ্ধা‌ন্তের কথা জানান, সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সে‌ক্রেটা‌রি শাখাওয়াত হো‌সেন দুলাল।

অ্যাপনির্ভর ট্যা‌ক্সি ও মোটরসাইকেল রাইড শেয়া‌রিংয়ের বি‌রো‌ধিতা ক‌রে ধর্মঘট ডাকায় ব্যাপক সমা‌লোচনায় প‌ড়েন তারা।


‘এটি ভুল প্রচার হ‌য়ে‌ছে’ দা‌বি ক‌রে দুলাল ব‌লেন, অ্যাপনির্ভর সেবার বি‌রো‌ধিতা ক‌রি‌নি। দা‌বি ছি‌লে, মেয়াদোত্তীর্ণ সিএনজি অপসারণ ও অনু‌মোদন ছাড়া যেন অ্যাপনির্ভর এসব সেবা না চ‌লে। আমরা নি‌জেরাও অ্যা‌পে চ‌লে যা‌চ্ছি।


হ্যালো-র পরিচালক (মার্কেটিং) রাকিবুল হাসান বলেন, হ্যালো সরকার অনুমোদিত দে‌শের প্রথম এবং একমাত্র রাইড শেয়া‌রিং অ্যাপ । হ্যালো-র অ্যাপ‌নির্ভর পরিবহণ সেবা থেকে গাড়ি, সিএনজি অটো‌রিকশা এবং মোটরসাইকেল -এর মালিক, ড্রাইভার এবং যাত্রী সবাই উপকৃত হবে।

তিনি বলেন, শিগগিরই হ্যালো-র পার্টনার অ্যাপ‌ এবং প্যাসেঞ্জার অ্যাপ‌ উন্মুক্ত করা হবে এবং পার্টনারদের গাড়ির রেজিস্ট্রেশন শুরু হবে। হ্যালো-র এক অ্যা‌পেই গাড়ি, সিএনজি অটো‌রিকশা এবং মোটরসাইকেল -এর সুবিধা থাকবে বলে তিনি জানান।

হ্যালো সিএন‌জির একজন মুখপাত্র রিংকু জামাল বলেন, কয়েকটি অ্যাপনির্ভর ট্যা‌ক্সি ও মোটরসাই‌কেল রাইড আসার পর সিএনজি অটোরিকশা চালকরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকছেন। ট্রিপ পাচ্ছেন না। চালকদের এ সমস্যা সমাধানে অ্যাপের বিষয়টি চিন্তা করা হয়। পরে চালকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ভালো সাড়া পাওয়া যায়।


তিনি জানান, প্রায় দেড়শো চালককে তারা প্রশিক্ষণও দিয়ে দিয়েছেন। হ্যালো সিএনজি অ্যাপ থেকে গ্রুপভিত্তিক বিভিন্ন স্থানে গিয়ে সিএনজি চালকদের মধ্যে ক্যাম্পেইন করছেন।

ভাড়া কেমন হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সরকার নির্ধারিত যে ভাড়া আছে সেটাই থাকবে, শুধু অ্যাপে এ সেবা দেওয়া হবে বলে কিছু বেশি হবে।

অ্যাপনির্ভর ট্যা‌ক্সি, সিএনজি অটো‌রিকশা এবং মোটরসাইকেল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানকে স্বাগত জানিয়ে সিএনজি অটো‌রিকশা যাত্রী আবদুল মান্নান বলেন, এর ফলে চালকদের সঙ্গে ভাড়া নিয়ে দরাদ‌রি বন্ধ হ‌বে, অর্থ বাঁচবে এবং সময়ের অপচয়রোধ হবে।

হ্যালো অ্যাপের সরকারী অনুমোদনকে সাধুবাদ জানিয়ে ব্যবসায়ী আলী হাসান মাহমুদ বলেন, ‘দেশীয় প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়ায় দেশের টাকা দেশেই থেকে যাবে। মালয়েশিয়া এবং থাইল্যান্ডের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশে বিদেশি প্রতিষ্ঠানের সার্ভিস বন্ধ করে দেশি প্রতিষ্ঠানের সেবাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। আমাদের দেশেও তা অনুসরণ করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিশেষ প্রতিবেদন এর অারো খবর