উপকূলীয় এলাকায় ভারী বর্ষণ, জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা
উপকূলীয় এলাকায় ভারী বর্ষণ, জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা
২০১৭-১০-২০ ১৯:০৯:৩৮
প্রিন্টঅ-অ+


গভীর সমুদ্রে সৃষ্ট সঞ্চালনশীল মেঘমালার কারণে বরিশালসহ পুরো উপকূলীয় এলাকায় থেমে থেমে হালকা এবং ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে অভ্যন্তরীন নদী বন্দরসমূহে ২ নম্বর এবং সমুদ্র বন্দরসমূহে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত বলবৎ রয়েছে।

এদিকে আরো বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে বরিশাল আবহাওয়া অফিস।

বরিশাল আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শুক্রবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিগত ২৪ ঘণ্টায় ৬৭.৬ মিলিমিটার বৃস্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এর মধ্যে সকাল ৬টা পর থেকে ১২টা পর্যন্ত ৬ ঘণ্টায় ৫০ মিলিমিটর বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে স্থানীয় আবহাওয়া অফিস।

গভীর সমুদ্রে সৃষ্ট সঞ্চালনশীল মেঘমালার কারণে সমুদ্র এবং নদী উত্তাল রয়েছে। অভ্যন্তরীণ নদী বন্দরসমূহের জন্য ২ নম্বর সতর্ক সংকেত এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর জন্য ৩ নম্বর সংকেত বলবৎ রয়েছে। ২ নম্বর সতর্ক সংকেত বলবৎ থাকায় ৫৬ ফিটের কম দৈর্ঘ্যর (এমএল টাইপ) লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

নগরীসহ বিভিন্ন নিম্নাঞ্চলে স্বাভাবিকের চেয়ে পানি বেড়েছে। এছাড়া উপকূলীয় এলাকায় দ্বীপ এবং চর সমূহের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে এক থেকে দুই ফুটের অধিক উচ্চতায় জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

অসময়ে বৃষ্টির কারণে শুক্রবার সকাল থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে যেতে পরিবহন সংকটে পড়েন সাধারণ জনগণ।

এতে চরম দুর্ভোগের কথা জানিয়েছেন তারা।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর