২৫ দিন পর ফের পদ্মা সেতুর পাইল ড্রাইভ শুরু
২৫ দিন পর ফের পদ্মা সেতুর পাইল ড্রাইভ শুরু
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০৮-১৪ ২০:৩৪:২৭
প্রিন্টঅ-অ+


হ্যামারের সমস্যার কারণে ২৫ দিন বন্ধ থাকার পর আবার পাইল ড্রাইভ শুরু হয়েছে পদ্মা সেতু প্রকল্পে। শুক্রবার রাতে পাইল ড্রাইভের কাজ নতুন করে শুরু হয়েছে। এই তথ্য জানিয়েছেন পদ্মা সেতু প্রকল্প সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা।

তারা আরও জানান, সেতুর ৩৬ নম্বর পিলারে পাইল ড্রাইভ করছে ২৪’শ কিলোজুল সম্পন্ন হ্যামারটি। এই হ্যামার মেরামতের কারণে পাইল ড্রাইভ বিলম্বিত হচ্ছিল। অল্প কয়েকটি ছাড়া ২৪’শ কিলোজুলের এই হ্যামারটিই সব পাইল ড্রাইভ করেছে। ৩ হাজার কিলোজুল ক্ষমতার সবচেয়ে বড় হ্যামারটি মাত্র ৩টি পাইল ড্রাইভ করে সংস্কারে চলে যায়। তবে আরও দুটি পাইল শিগগিরই পদ্মা সেতু প্রকল্পে যোগ হবে। এর একটি ১৯’শ কিলোজুল সম্পন্ন। গত ২২ জুলাই সিংগাপুর থেকে এটি রওয়ানা হওয়ার কথা। আগস্টের ৩/৪ তারিখের দিকে এটি মাওয়ায় পৌঁছার কথা রয়েছে বলেও জানান প্রকৌশলীরা। তারা আশা করছেন, আগস্টের প্রথম সপ্তাহে এটি পাইল ড্রাইভ শুরু করতে পারবে। এছাড়া সাড়ে তিন হাজার কিলোজুল ক্ষমতার আরেকটি হ্যামার জার্মানিতে তৈরি হচ্ছে। এটি আসবে আগামী নভেম্বর মাসে।
২৫ দিন পর ফের পদ্মা সেতুর পাইল ড্রাইভ শুরু

পদ্মা সেতুর সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন, হ্যামার সমস্যার কারণে মূল সেতুর কাজ কিছুটা বিলম্বিত হচ্ছে। এর আগে ২ হাজার কিলোজুল ক্ষমতার একটি হ্যামার আনা হলেও এটি বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ কোম্পানি একের পর এক হ্যামার আনলেও তেমন কোনও ফল পাচ্ছে না। হ্যামারের বিষয়টি একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই এই ব্যাপারে এখন বেশ গুরুত্ব আরোপ করা হচ্ছে।

এদিকে সেতুর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের লেয়ার বেইজ কংক্রিটিং সম্পন্ন হয়েছে। ২৩ জুলাই ৩৮ নম্বর পিলার ও ১৭ জুলাই ৩৭ নম্বর পিলারের বেইজ কংক্রিটিং সম্পন্ন হয়। আশা করা হচ্ছে, আগামী এক মাসের মধ্যে এই পিলার দুটির কাজ সম্পন্ন হবে। এতে করে সেপ্টেম্বরে প্রথম স্প্যানটি বসানো যাবে।

জানা গেছে, সেতুর ১০ নম্বর স্প্যানটি গত ২৩ জুলাই চীন থেকে মাওয়ার উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছে। আগস্টের মাঝামাঝি এটি পৌঁছার কথা রয়েছে।

মূল সেতুর ৮০টি পাইল স্থাপন করা হয়েছে। এর মধ্যে নদীতে ৬৪টি টিউব পাইল ও জাজিরা প্রান্তে তীরের ৪২টি বোরেট পাইল। এসব পাইলের মধ্যে কংক্রিটিং হয়েছে ৩৪টি পাইল। তবে হ্যামার সমস্যার সমাধান হলে সেতুর কাজে আরও অনেক গতি ফিরবে বলে আশা করছেন প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর