বিনা দরপত্রে বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ চায় টাটা
বিনা দরপত্রে বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ চায় টাটা
২০১৭-০৬-৩০ ২৩:০২:১৫
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশে বিদ্যুৎ খাতে প্রবেশে আগ্রহী ভারতের অন্যতম বড় শিল্প গ্রুপ টাটা। বিনা দরপত্রে চট্টগ্রামে একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করতে চায় কোম্পানিটি। বিশেষ আইনে এই কাজ পেতে বিদ্যুৎ বিভাগে চিঠি দিয়েছে টাটা গ্রুপের টাটা প্রজেক্টস লিমিটেড (টিপিএল)। আরেক ভারতীয় কোম্পানি ম্যাগনাস পাওয়ার প্রাইভেট লিমিটেডের (এমপিপিএল) সঙ্গে যৌথভাবে কেন্দ্রটি নির্মাণ করতে চায় টাটা।

টাটার এ কেন্দ্রটি মিরসরাই রফতানি প্রক্রিয়াকরণ (ইপিজেড) এলাকায় নির্মিত হবে। ১৫০ মেগাওয়াটের এই কেন্দ্রটি মূলত একটি পাবলিক প্রকল্প। বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এবং রুরাল পাওয়ার কোম্পানির (আরপিসিএল) যৌথ উদ্যোগে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্প পরামর্শক নিয়োগে ইতিমধ্যে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। তাই বিনা দরপত্রে কার্যাদেশ পাওয়ার আগ্রহ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সংশ্লিষ্টরা।

জানতে চাইলে পিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালিদ মাহমুদ বলেন, কেন্দ্রটি টেন্ডার প্রক্রিয়ায় বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া চলছে। যাদের আগ্রহ রয়েছে, তাদের এই প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে হবে।

রিলায়েন্স ও আদানির মতো বড় ভারতীয় গ্রুপ ইতিমধ্যে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বিনিয়োগে চুক্তি করেছে। এবার টাটা এ খাতে আসছে।

বিদ্যুৎ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ মে টাটা প্রজেক্টসের মহাব্যবস্থাপক (পাওয়ার জেনারেশন) আর. গণেশ বিনা দরপত্রে ঠিকাদারি কাজ দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছেন। একই সঙ্গে চিঠিটির অনুলিপি প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহি চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

টাটার চিঠিতে বলা হয়েছে, অর্থনৈতিক প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলের জন্য বিদ্যুৎকেন্দ্রটি খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রকল্প। নির্দিষ্ট সময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ করা খুব জরুরি। নির্ধারিত সময়ে ও অপেক্ষাকৃত কম দামে কেন্দ্র নির্মাণ করে দেবে টাটা। চিঠিতে টাটা ও ম্যাগনাস গ্রুপের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেওয়া হয়েছে। টাটা জানিয়েছে, টিপিএল ভারতে ও বিদেশে ৭৪টি প্রজেক্টে কাজ করছে। তারা সম্প্র্রতি অন্ধ প্রদেশে ১৬০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার একটি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ শেষ করেছে। ম্যাগনাস সম্পর্কে বলা হয়েছে, কোম্পানিটি ভারতের পাশাপাশি বাংলাদেশের অনেক প্রকল্পে কাজ করছে। ম্যাগনাস বাংলাদেশে ২৭৬ মেগাওয়াটের চারটি ফার্নেস অয়েল চালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করেছে। এগুলো হলো_ সিএলসি পাওয়ার ১০৭ মেগাওয়াট, দেশ এনার্জি ৫৮ মেগাওয়াট, ঢাকা সাউদার্ন পাওয়ারের ৫৫.৬ মেগাওয়াট এবং ঢাকা নর্দান পাওয়ারের ৫৫.৬ মেগাওয়াট। তারা ২১৮ মেগাওয়াটের আরও তিনটি কেন্দ্র নির্মাণের কাজ করছে। এগুলো হলো_ ঢাকা নর্দান পাওয়ার ইউটিলিটির ১১০ মেগাওয়াট, ব্যানকো ইলেকট্রি কোম্পানির ৫৫.৬ মেগাওয়াট এবং ভৈরব পাওয়ারের ৫৫.৬ মেগাওয়াট।
(হাসনাইন ইমতিয়াজ)

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

অর্থনীতি এর অারো খবর