সংরক্ষিত প্রাকৃতিক অঞ্চলসমূহ নিয়ে উইকিপিডিয়ার ছবি প্রতিযোগিতা
সংরক্ষিত প্রাকৃতিক অঞ্চলসমূহ নিয়ে উইকিপিডিয়ার ছবি প্রতিযোগিতা
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০৪-৩০ ১৪:৫৫:১১
প্রিন্টঅ-অ+


প্রতি বছর বিভিন্ন দেশের সংরক্ষিত অঞ্চলসমূহের ছবির একটি স্থায়ী সংগ্রহশালা তৈরি করার উদ্দেশ্যে ও সংশ্লিষ্ঠ অঞ্চলসমূহকে বিশ্বদরবারে উপস্থাপনের জন্য ‘উইকি লাভস আর্থ’ নামে একটি আন্তর্জাতিক ছবি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

প্রতিযোগিতাটি আয়োজন করে মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ার তত্ত্বাবধানকারী স্থানীয় সংস্থাগুলো।

বাৎসরিক এ প্রতিযোগিতায় এবারই প্রথম বাংলাদেশও অংশগ্রহণ করছে। বাংলাদেশে এ প্রতিযোগিতাটি আয়োজন করছে ‘উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ’ চ্যাপ্টার।

এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের যেকেউ অংশ নিতে পারবে। বাংলাদেশের সংরক্ষিত অঞ্চলের তালিকা থেকে যেকোনো সময় তোলা যেকোনো স্থানের ছবি যত খুশি আপলোড করা যাবে পুরো মে মাস জুড়ে। প্রতিযোগিতাটি মে ১ থেকে শুরু হয়ে মে ৩১ পর্যন্ত চলবে। প্রতিযোগিতা শেষে অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দেশ থেকে প্রাপ্ত সেরা ১০টি করে ছবি থেকে আন্তর্জাতিক বিজয়ী ঘোষণা করা হবে। প্রথম পুরস্কার হিসেবে রয়েছে ২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠেয় উইকিপিডিয়ার বার্ষিক সম্মেলন ‘উইকিম্যানিয়ায়’ যোগদানের সুযোগ। এছাড়া স্থানীয় পর্যায়ে ও সতন্ত্রভাবে পুরস্কার প্রদান করা হবে।

উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশে এ প্রতিযোগিতার সমন্বয়ক নাহিদ সুলতান জানান, ‘বাংলাদেশের সংরক্ষিত জাতীয় উদ্যান, বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যগুলোর নিবন্ধ উইকিপিডিয়াতে থাকলেও অধিকাংশেরই কোনো ছবি নেই। এ প্রতিযোগিতা থেকে প্রাপ্ত বাংলাদেশের প্রাকৃতিক অঞ্চলগুলোর ছবি উইকিপিডিয়ার মাধ্যমে বিশ্বদরবারে উপস্থাপন করাই আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য।’

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশগ্রহণের জন্য http://wikiloves.org/earth ঠিকানায় গিয়ে ছবি আপলোড করতে হবে। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে শুরু হওয়া এই প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত বিভিন্ন দেশের ২৫ হাজার অংশগ্রহণকারী ২ লাখ ৮৫ হাজার ছবি উইকিপিডিয়াতে যুক্ত করেছেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

পরিবেশ এর অারো খবর