যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড : আপিল বিভাগ
যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড : আপিল বিভাগ
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০৪-২৪ ২২:৩৭:২৫
প্রিন্টঅ-অ+


যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু (ন্যাচারাল লাইফ) কারাদণ্ড বলে উল্লেখ করেছেন আপিল বিভাগ।

সোমবার সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সাভারের এক হত্যা মামলার পূর্ণাঙ্গ রায়ে এ কথা উল্লেখ করেছেন আপিল বিভাগ।

এর আগে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ওই মামলার রায় ঘোষণার সময় আপিল বিভাগ বলেছিলেন, যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু (ন্যাচারাল লাইফ) কারাবাস।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন।

ওই হত্যা মামলার আসামিপক্ষের আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘প্রধান বিচারপতি বলেছেন, যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু (ন্যাচারাল লাইফ) কারাবাস। তখন আমি এর প্রতিবাদ করেছি। আমি বলেছি, দণ্ডবিধির ৫৭ ধরায় যাবজ্জীবন দণ্ড অর্থ ৩০ বছর। এ ছাড়া যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা কারাগারে রেয়াত পেলে দণ্ড আরো কমে আসে। যদি আমৃত্যুই হয়ে থাকে তাহলে এদের রেয়াতের কী হবে? আমি আরো বলেছি, প্রধান বিচারপতির এ মন্তব্য যেন মূল রায়ে না থাকে। তবে এটা যদি থাকে তাহলে সব আসামির ক্ষেত্রে এটা প্রযোজ্য হবে।’

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘সাভারের তিনজনের মৃত্যুদণ্ড মওকুফ করে যাবজ্জীবন দণ্ড দেন আদালত। তবে আদেশে বলেছেন, যাবজ্জীবন মানে ৩০ বছর নয়, আমৃত্যু কারাদণ্ড। তখন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা বলেছেন, যাবজ্জীবন মানে ৩০ বছর। জবাবে প্রধান বিচারপতি বলেছেন, মূল রায়ে এটার ব্যাখ্যা থাকবে।’

২০০১ সালে সাভারে জামান নামের এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ২০০৩ সালে দ্রুত বিচার আদালত তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দেন। হাইকোর্টে আপিলের পর বিচারিক আদালতের দণ্ড বহাল থাকে। পরে আপিলের পর ১৪ ফেব্রুয়ারি তিনজনের মৃত্যুদণ্ড মওকুফ করে যাবজ্জীবন দণ্ড দেওয়া হয়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর