প্রথমবারের মতো বাজারে এলো পূর্ণাঙ্গ বাংলা কি-বোর্ড
প্রথমবারের মতো বাজারে এলো পূর্ণাঙ্গ বাংলা কি-বোর্ড
২০১৭-০৩-১৪ ২৩:১৪:২০
প্রিন্টঅ-অ+


আন্তর্জাতিক পরিসরে প্রথমবারের মতো পূর্ণাঙ্গ বাংলা কি-বোর্ড ‘লজিটেক কে-১২০’ উন্মুক্ত করেছে প্রযুক্তিপণ্য বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান কম্পিউটার সোর্স। গতকাল সোমবার রাতে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানে বৈশ্বিক ব্র্যান্ড লজিটেকে এই কি-বোর্ড প্রকাশ করা হয়। এতে বিজয় বাংলার সর্বশেষ সংস্করণের নকশা ব্যবহৃত হয়েছে।

লজিটেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সার্ক ও ভারত) মণীন্দ্র জেইন প্রথম আলোকে বলেন, বাংলাদেশের কম্পিউটার বাজারে মাউস, কি-বোর্ডের ক্ষেত্রে লজিটেক ব্র্যান্ড শীর্ষে। বাংলা ভাষার কি-বোর্ডের চাহিদা বাড়ছে। এ লক্ষ্যে লজিটেক প্রথমবারের মতো বাংলায় কি-বোর্ড আনছে।

অনুষ্ঠানে মণীন্দ্র জেইন বলেন, দুনিয়াজুড়ে বাংলা ভাষার রয়েছে একটি স্বাতন্ত্র্য ঐতিহ্য। ২১ ফেব্রুয়ারি বিশ্বজুড়ে পালিত হয় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। বাংলা ভাষার প্রতি সম্মান দেখিয়ে ইংরেজির পর প্রথমবারের মতো লজিটেক কে-১২০ বাংলা কি-বোর্ড বাজারে আনা হলো। এ কি-বোর্ড ব্যবহারে বাংলা টাইপ করা সহজ হবে। এ ছাড়া তিন বছর পর্যন্ত বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন ক্রেতা।

মণীন্দ্র জেইন বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত বাংলাভাষী মানুষের কাছে নিজেদের কি-বোর্ড হিসেবে বিবেচিত হবে এটি।

অনুষ্ঠানে নতুন কি-বোর্ডটির মোড়ক উন্মোচন করেন কম্পিউটার সোর্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহফুজুল আরিফ, বিজয় কি-বোর্ডর রূপকার মোস্তাফা জব্বার ও লজিটেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মণীন্দ্র জেইন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন লজিটেক ভারত ও দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়া অঞ্চলের ক্লাস্টার ক্যাটাগরি বিভাগের প্রধান অশোক জানগ্রা, লজিটেক বাংলাদেশ ও ভুটান অঞ্চলের কান্ট্রি ম্যানেজার পার্থ ঘোষ, কম্পিউটার সোর্সের পরিচালক এ ইউ খান জুয়েল ও আসিফ মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে মোস্তাফা জব্বার বলেন, লজিটেক কে-১২০ পূর্ণাঙ্গ একটি বাংলা কি-বোর্ড। এটি বিজয়ের তৃতীয় সংস্করণ। ইউনিকোড বিধিসম্মত দুই স্তরের এই কি-বোর্ডের মাধ্যমে সংযুক্ত রয়েছে প্রাচীন বাংলার লুপ্ত চিহ্ন ও লিপি। তাই জমির দলিলে থাকা কানা-কড়ির হিসাব যেমন সহজেই লেখা যাবে, তেমনি কড়া-গন্ডার হিসাব কিংবা পুঁথিগুলোকে ডিজিটাল মাধ্যমে সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে। একই সঙ্গে এই কি-বোর্ডটি বাংলা লিপি ব্যবহারকারী অসমিয়া, মণিপুর, নাগা, চাকমারাও ব্যবহার করতে পারবেন। কম্পিউটারে পূর্ণাঙ্গ বাংলা লেখার জন্য এই কি-বোর্ডটি লেখক-প্রকাশক থেকে শুরু করে দাপ্তরিক কাজে এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় ব্যবহৃত হবে।

লজিটেক বাংলাদেশ ও ভুটান অঞ্চলের কান্ট্রি ম্যানেজার পার্থ ঘোষ বলেন, লজিটেক ‘বিজয়’ কি-বোর্ডের একটি পূর্ণাঙ্গ সংস্করণ প্রকাশ করল। ২০০৩ সালে কম্পিউটার সোর্স নিজেদের ব্র্যান্ডে বিজয় কি-বোর্ড লেআউট প্রকাশ করে। এবারে লজিটেকের মাধ্যমে এই লেআউট প্রকাশ করে বিজয়র আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এনে দিয়েছে।

কম্পিউটার সোর্সের পরিচালক আসিফ মাহমুদ বলেন, সর্বস্তরে বিশেষ করে ওয়েব বিশ্বে বাংলা ভাষার ব্যবহার বাড়াতে হবে। এ উদ্যোগ হিসেবে বিশ্বের অন্যতম কি-বোর্ড নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লজিটেক বাংলা কি-বোর্ড উন্মুক্ত করেছে।

নতুন এই কি-বোর্ড কম্পিউটার সোর্সের মাধ্যমে দেশের প্রায় সব কম্পিউটার বাজারে পাওয়া যাবে। এর দাম ৬২৫ টাকা।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর