স্বাধীনতা দিবসে পতাকা বিধিমালা মেনে চলার নির্দেশ
স্বাধীনতা দিবসে পতাকা বিধিমালা মেনে চলার নির্দেশ
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০৩-০৮ ০০:৪১:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+


মহান স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের ক্ষেত্রে যথাযথ বিধিমালা অনুসরণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার এক সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়েছে, ‘আসন্ন মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের ক্ষেত্রে সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত এবং বেসরকারি ভবনসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ পতাকা বিধিমালা, ১৯৭২ অনুযায়ী সঠিক মাপ ও রঙের ব্যবহার এবং যথাযথ পদ্ধতিতে উত্তোলন ও নামানোর বিষয়টি অনুসরণ করতে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।’

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০১৭ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ নির্দেশনা প্রদান করা হয় বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, জাতীয় পতাকা একটি রাষ্ট্রের পরিচয়, জাতীয়তা, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতীক। স্বাধীন, সার্বভৌম বাংলাদেশের অস্তিত্বের প্রতীক হচ্ছে আমাদের প্রিয় লাল সবুজ পতাকা। কিন্তু আমাদের দেশে গুরুত্বপূর্ণ এ প্রতীক ব্যবহারের বিধি সম্পর্কে জনগণ জানে না কিংবা জেনেও মানে না; অথচ এর ব্যবহারের জন্য রয়েছে সুস্পষ্ট বিধিমালা।

জাতীয় পতাকা বিধিমালা-১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০)-এ জাতীয় পতাকা ব্যবহারের বিভিন্ন বিধি-বিধান বর্ণিত হয়েছে। জাতীয় পতাকা বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের নিদর্শন। তাই সব সরকারি ভবন, অফিস, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ভবনে সব কর্মদিবসে পতাকা উত্তোলনের বিধান রয়েছে।

এ ছাড়া কিছু কিছু অনুষ্ঠান উপলক্ষে যেমন- ঈদ, স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস ও সরকার প্রজ্ঞাপিত অন্য যেকোনো দিবসে বাংলাদেশের সরকারি, বেসরকারি ভবন ও বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের কূটনৈতিক মিশনের প্রাঙ্গণে এবং কনসুলার কেন্দ্রগুলোয় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা বাধ্যতামূলক।

তা ছাড়া শহীদ দিবস ও জাতীয় শোক দিবসে বা সরকার প্রজ্ঞাপিত অন্যান্য দিবসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকার বিধান হয়েছে। অর্ধনমিত রাখতে হলে পতাকা উত্তোলনের নিয়ম হলো- অর্ধনমিত অবস্থায় উত্তোলনের প্রাক্কালে পতাকাটি পুরোপুরি উত্তোলন করে অর্ধনমিত অবস্থানে আনতে হবে এবং পতাকা নামানোর প্রাক্কালে পতাকাটি শীর্ষে উত্তোলন করে নামাতে হবে। পতাকার মাপ সম্পর্কে ধারণা না থাকায় দেশে বিভিন্ন মাপের পতাকা দেখা যায়। জাতীয় পতাকার মাপ হবে ১০:৬ দৈর্ঘ্য ও প্রস্থের আয়তাকার ক্ষেত্রের গাঢ় সবুজ রঙের মাঝে লাল বৃত্ত এবং বৃত্তটি দৈর্ঘ্যের এক-পঞ্চমাংশ ব্যসার্ধবিশিষ্ট হবে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর