শুরু হয়েছে প্রোগ্রামিং শেখার কর্মসূচি ‘আওয়ার অব কোড’
শুরু হয়েছে প্রোগ্রামিং শেখার কর্মসূচি ‘আওয়ার অব কোড’
সংগীতা ঘোষ
২০১৫-১২-০৮ ২০:০১:২৪
প্রিন্টঅ-অ+


প্রোগ্রামিং শেখার জন্য সারা বিশ্বে ‘আওয়ার অব কোড’ আয়োজনটি পরিচিত। বিশ্বব্যাপী ‘আওয়ার অব কোড’ ছড়িয়ে দিতে উদ্যোগ নিয়েছেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ, শান্তিতে নোবেল বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই থেকে শুরু করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা পর্যন্ত। বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদও আওয়ার অব কোড ছড়িয়ে দিতে দেশে কাজ করছেন।

বাংলাদেশে সোমবার (৭ ডিসেম্বর) কোডারসট্রাস্ট বাংলাদেশ আয়োজিত প্রোগ্রামিং শেখার কর্মসূচি ‘আওয়ার অব কোড’ শুরু হয়েছে । চলবে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

বাংলাদেশে আওয়ার অব কোডের মূল আয়োজক কোডারসট্রাস্টের পাশাপাশি সহযোগী হিসেবে রয়েছে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ এবং পার্টনার হিসেবে রয়েছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ব্র্যাক ডটনেট, বিডি জবস, আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এবং জাগো ফাউন্ডেশন।

‘আওয়ার অব কোড’ সবার জন্য উন্মুক্ত।
এতে অংশ নিতে https:// www.coderstrust.com/hourofcode ওয়েবসাইটে যেতে হবে। এখানে আওয়ার কোড অনুষ্ঠানের স্থান ও অনুষ্ঠান সম্পর্কে জানা যাবে।

বাংলাদেশে আওয়ার অব কোড ছড়িয়ে দেয়া প্রসঙ্গে কোডারসট্রাস্টের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জন-কায়ো ফেবিগ বলেন, ‘আওয়ার অব কোড’প্রোগ্রামটি প্রোগ্রামটি সবার জন্য উন্মুক্ত। সবাইকে কোড শিখতে উৎসাহ দিতে বাংলাদেশে এ কর্মসূচি চালু করছে কোডারসট্রাস্ট। প্রোগ্রামটিতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের তরুণ শিক্ষার্থীরা শিক্ষা ও অনলাইন চাকরির বাজারে নিজেদের পরিচয় ঘটিয়ে জীবনযাত্রার মান পরিবর্তন করতে পারবে বলে আশা করি। কোডারসট্রাস্ট প্রসঙ্গে ফেবিগ বলেন, এটি ডেনমার্ক প্রতিষ্ঠান। গত দুই বছর ধরে বাংলাদেশে তরুণ মেধাবীদের তথ্যপ্রযুক্তিতে প্রশিক্ষণ দিতে কাজ করছে।

বাংলাদেশে আওয়ার অব কোডের মতো উদ্যোগ চালু করে দেশের তরুণদের কোড শেখার প্রতি আরো উৎসাহ দিতে চায় কোডারসট্রাস্ট। গত এক দশকে ফ্রিল্যান্সিং জগতের বড় ধরনের অগ্রগতি বিবেচনায় ফেবিগ বলেন, ‘বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ ফ্রিল্যান্সিং প্রতিভাধরদের মানের ওপর অনেকাংশে নির্ভর করছে। কোডারসট্রাস্ট মনে করে বয়স, লিঙ্গ বা আর্থ-সামাজিক ভেদাভেদ ভুলে প্রতিটি বাংলাদেশির অনলাইন মার্কেটপ্লেসে কাজ করে স্বনির্ভর হওয়ার সুযোগ আছে। তিন মাসেরও কম সময়ে নিজের ইচ্ছাশক্তি আর দৃঢ়তা দিয়ে কোড শেখা যায়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিবিধ এর অারো খবর