মোবাইল ব্যাংকিংয়ে জনগণ প্রতারিত হচ্ছে
মোবাইল ব্যাংকিংয়ে জনগণ প্রতারিত হচ্ছে
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০২-০৯ ১৪:১৩:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+


দেশে মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে যা হচ্ছে, তা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা ও তামাশা বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আয়োজিত উপ-কর কমিশনার সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ফরাসউদ্দিন বলেন, বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ১০০ টাকা লেনদেনের সময় ১ টাকা ৮৬ পয়সা চার্জ হিসেবে কেটে নিচ্ছে সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। যা প্রায় দুই টাকার সমান। এটা জনগণের সঙ্গে এক প্রকার প্রতারণা। তারা মানুষকে ঠকাচ্ছে। যেখানে ব্যাংক সিস্টেমে নেয় ৪০ পয়সা। সেখানে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে এ চার্জ ৪০ পয়সার বেশি হওয়া উচিত নয়। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠানকে ভেবে দেখতে হবে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন সময় এনবিআর গ্রাহকের ব্যাংক হিসাব দেখতে চায়। বিশেষ প্রয়োজন না হলে এটা করা উচিত নয়। কেবল সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে গ্রাহকের ব্যাংক হিসাব দেখতে হবে। কারণ এটা মানুষের আমানত; তা রক্ষা করতে হবে। এ ছাড়া এনবিআর বিভিন্ন সময় অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে চিঠি দেয়। এ ক্ষেত্রে যথাযথ সম্মান দেখিয়ে চিঠি দেওয়া উচিত।

কর ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়নের বিষয়ে ফরাসউদ্দিন বলেন, কর ব্যবস্থাপনা অটোমেশনের আওতায় আনলে এর স্বচ্ছতা বাড়বে। কর আহরণও বাড়বে। বিভিন্ন মামলা জটিলতায় এনবিআরের প্রায় ৩২ হাজার কোটি টাকা আটকে আছে। তাই বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির (এডিআর) বিষয়ে নজর দিতে হবে। এতে করে ৫০ শতাংশ টাকা এলেও আগামী বাজেটে অর্থের অভাব হবে না।

সম্মেলনে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ ও এনবিআর সদস্য মো. আব্দুল রাজ্জাকসহ এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

অর্থনীতি এর অারো খবর