২২ বছর ধরে ম্যানহোলে থাকেন এই দম্পতি!
২২ বছর ধরে ম্যানহোলে থাকেন এই দম্পতি!
২০১৭-০২-০৪ ২২:০৩:০৯
প্রিন্টঅ-অ+


২২ বছর ধরে ম্যানহোলের মধ্যে জীবন পার করছেন কলম্বিয়ার মারিয়া গর্সিয়া আর মিগুয়েল রেসট্রেপো দম্পতি।

কলম্বিয়ার মেডেলিনের রাস্তায় ৪ দশমিক ৫ ফুট বাই ১০ ফুট ম্যানহোল। যার গভীরতা ৬ দশমিক ৫ ফুট। ম্যানহোলের ঢাকনাটা সারা বছরই খোলা থাকে।

পথে চলাচল করা মানুষও জানেন ওটা আসলে মারিয়া-মিগুয়েল দম্পতির বাড়ি!

মারিয়া-মিগুয়েল দম্পতির সঙ্গী একমাত্র পোষ্য কুকুর ব্ল্যাকি। হঠাৎ কেনই বা তারা এ ড্রেনে বসবাসের সিদ্ধান্ত নিলেন? তার পেছনেও রয়েছে বেশ কিছু কারণ।

মারিয়া-মিগুয়েল প্রেম করে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তবে তার আগে দুজনেই ড্রাগ চোরাচালানকারী দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ওই পেশায় থাকা অবস্থাতেই পরিচয় হয় মারিয়া-মিগুয়েলের।

ম্যানহোলে কলম্বিয়ার দম্পতিপরে সেই অন্ধকার জীবন ছেড়ে দুজনে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। কিন্তু থাকার জায়গা পাবেন কোথায়?

চলার পথে এই শুকনো পরিত্যক্ত ম্যানহোলটা দেখেই পছন্দ হয় এই দম্পতির। ঠিক করেন ম্যানহোলের মধ্যেই সাজিয়ে তুলবেন নিজেদের সংসার।

ম্যানহোলের ভেতরের জায়গা পরিষ্কার করে সাজিয়ে তোলেন নিজেদের সংসার। বিদ্যুতের কানেকশন থেকে ছোট্ট কিচেন, বিছানা, র‌্যাক, টিভি সবটাই রয়েছে এই সংসারে।

বাতিল সিডি ড্রেনের দেওয়ালে লাগিয়ে ঘরের অন্দরসজ্জাও করেছেন তারা।

শুধু তাই নয়, যে কোনো অনুষ্ঠানে নিজেদের ম্যানহোলের সংসারকে সুন্দর করে সাজিয়ে তোলেন তারা। ক্রিসমাসের সময় ম্যানহোলের বাইরে ক্রিসমাস ট্রি, সান্তাক্লজ, জিঙ্গল বেল কোনোটাই বাদ দেননি মারিয়া-মিগুয়েল।

তারা না থাকলে ‘ম্যানহোল-বাড়ি’ পাহারা দেয় তাদের পোষ্য ব্ল্যাকি।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ফিচার এর অারো খবর