বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দরের কাজ শিগগিরই
বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দরের কাজ শিগগিরই
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০২-০২ ১৪:০৪:৩৯
প্রিন্টঅ-অ+


জাতীয় পার্টির সদস্য নুরুল ইসলাম ওমরের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মাদারীপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের সমীক্ষার কাজ শিগগিরই শুরু হবে।

বুধবার সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে একথা বলেন।

পদ্মাসেতুর অপর প্রান্তে মাদারীপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের সমীক্ষার কাজ শিগগিরই শুরু হবে। দক্ষিণের জেলা পটুয়াখালীতে পায়রা বন্দরের কার্যক্রম শুরু হওয়ার ফলে ওই অঞ্চলে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি পাচ্ছে। পায়রা বন্দরের সঙ্গে সরাসরি রেল যোগাযোগ স্থাপনের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মৃতপ্রায় মংলা বন্দর লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। ইলেকট্রিক ট্রেন ও পাতাল ট্রেনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজও চলছে।

সংসদ নেতা আরো জানান, বর্তমানে ৯ হাজার ৮৪০ মেগাওয়াট ক্ষমতার ১২টি কয়লাভিত্তিক মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। বর্তমান সরকার ৩৫ কিলোমিটার নতুন রেলপথ নির্মাণ, ১৮০ কিলোমিটার রেলপথ পুনর্বাসন, ১০১ কিলোমিটার রেলপথকে ডুয়েল গেছে রূপান্তর সম্পন্ন হয়েছে। চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত ১২৯ দশমিক ৫ কিলোমিটার রেললাইন স্থাপনের জন্য একটি বৃহৎ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

দেশে দারিদ্র্যের হার নেমে এসেছে উল্লেখ করে প্রধনামন্ত্রী বলেন, ২০০৫ সালে দারিদ্র্যের হার ছিল ৪০ শতাংশ, যা ২০১৫ সালে নেমে এসেছে ২৪ দশমিক ৮ শতাংশে। ২০০৭-০৮ অর্থবছরে সামাজিক নিরাপত্তা খাতে মোট ব্যয় ছিল ১১ হাজার ৪৬৭ কোটি টাকা, যা চলতি অর্থবছরে ৪৫ হাজার ২৩০ কোটি টাকায় উন্নীত করা করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ২০০৫-২০০৬ অর্থবছরের চেয়ে দেশের বাজেট চার গুণ বৃদ্ধি পেয়ে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৯১ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে। চলতি অর্থবছরে ১ কোটি ১০ হাজার ৭শ’ কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট বরাদ্দ করা হয়েছে। ২০০৯ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত রাজস্ব প্রবৃদ্ধি হার ছিল ১৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ। যা অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বেশী।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি ২০১৬ সালের নমিনাল জিডিপির ভিত্তিতে ৩৩তম স্থান অধিকার করেছে। বর্তমানে মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৪৬৫ মার্কিন ডলার। তিনি বলেন, ২০০৯-২০১৫ মেয়াদে মোট রাজস্ব প্রবৃদ্ধির হার ছিল বার্ষিক ১৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ। যা অতীতের যেকোন সময়ের চেয়ে বেশি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতাগ্রহণের সময় প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৫ দশমিক ১ শতাংশ, যা গত অর্থবছরে ৭ দশমিক ১১ শতাংশ হয়েছে। এটি দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর