র‌্যাগিংয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ হলদিয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে
র‌্যাগিংয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ হলদিয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে
সংগীতা ঘোষ
২০১৫-১২-০৭ ১০:৪৩:৩৫
প্রিন্টঅ-অ+


র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ তুলে এ বার বিক্ষোভে সামিল হলেন ভারতের হলদিয়ার সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ‘সেন্ট্রাল ইনস্টিটিউট অফ প্লাস্টিকস্ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি’ (সিপেট)-র প্রথম বর্ষের শতাধিক পড়ুয়া। সোমবার সকাল সাড়ে ন’টা থেকে ক্লাস বয়কট করে শুরু হয় বিক্ষোভ।

এই কলেজেরই প্রথম বর্ষের ছাত্র অঙ্কিত কুমার সিংহকে হস্টেলের ঘর থেকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধরের অভিযোগ উঠেছিল গত শুক্রবার। তারপর কোলাঘাটের কাছে জখম অবস্থায় গাড়ি থেকে ফেলে দেওয়া হয় ওই ছাত্রকে। সেই ঘটনায় শনিবার কলেজের পাঁচ জন ছাত্রকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে খুনের জন্য অপহরণের মামলা রুজু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, খুনের পরিকল্পনার কথা না মানলেও জেরায় ধৃতেরা অঙ্কিতকে মারধরের কথা কবুল করেছে। বিহারের বাসিন্দা অঙ্কিতকে গত শুক্রবার রাতে মেচেদা থেকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে কোলাঘাট থানার পুলিশ। তাঁকে হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এই ঘটনায় ধৃতদের মধ্যে অঙ্কিতের এক সহপাঠীও রয়েছে। অঙ্কিতের দাবি, সেই সহপাঠীর দাদার বিরুদ্ধে তিনি র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ করেছিলেন। তার ভিত্তিতে তিন ছাত্র সাসপেন্ডও হন। অঙ্কিতের মতে সেই আক্রোশেই তাঁকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

এই ঘটনার প্রেক্ষিতেই র‌্যাগিং বন্ধ এবং নিরাপত্তার দাবিতে এ দিন কলেজ চত্বরে বিক্ষোভে সামিল হন প্রথম বর্ষের প্রায় দেড়শো ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া। তাঁদের হাতে ছিল প্ল্যাকার্ড, মুখে স্লোগান। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, শুধু অঙ্কিত নন, প্রথম বর্ষের বেশিরভাগ পড়ুয়াকেই সিনিয়র দাদা-দিদিদের র‌্যাগিংয়ের মুখে পড়তে হয়। কখনও জোর করে ধূমপানে বাধ্য করা হয়, কখনও চলে মারধর। প্রতিবাদ করলে চড়-থাপ্পড় জোটে। এমনকী প্রথম বর্ষের ছাত্রীদেরও নানা অশালীন মন্তব্য করে উত্ত্যক্ত করা হয় বলে অভিযোগ। কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও সুরাহা হয়নি। প্রথম বর্ষের ছাত্রদের তাই দাবি, অবিলম্বে র‌্যাগিং বন্ধে কড়া হতে হবে কর্তৃপক্ষকে। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

অঙ্কিতের উপর হামলার পরে এ দিনই অবশ্য বৈঠকে বসেছে এই সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের অ‌্যান্টি র‌্যাগিং কমিটি। বিকেল পর্যন্ত বৈঠক চলছে। এ দিকে, জখম অঙ্কিতকে এ দিন সকালে হলদিয়া মহকুমা হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। হলদিয়া মহকুমা আদালতে এ দিন গোপন জবানবন্দিও দিয়েছেন ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ওই ছাত্র।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিদেশ এর অারো খবর