অর্থনীতিতেও অবদান রাখছে মোবাইলফোন
অর্থনীতিতেও অবদান রাখছে মোবাইলফোন
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০১-২১ ০১:২৫:৪২
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশের অর্থনীতিতে মোবাইল ফোনের ইতিবাচক প্রভাবের কথা উল্লেখ করেছে জিএসএম অ্যাসোসিয়েশন (জিএসএমএ)।

প্রতিষ্ঠানটি মোবাইল সম্পর্কিত নানা বিষয় নিয়ে বিশ্বব্যাপী কাজ করে থাকে। জিএসএমএ ইন্টেলিজেন্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১৫ সালে বাংলাদেশের জিডিপিতে মোবাইল প্রযুক্তির অবদান ৬ দশমিক ২ শতাংশ। যার আর্থিক মূল্য ১৩ বিলিয়ন ডলার। একই বছর সারা দেশব্যাপী মোবাইল সংযোগদাতা ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো ৭ লাখ ৬০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে।

২০১৫ সালে বাংলাদেশ সরকারের মোট আয়ের ১০ শতাংশ আসে এ খাত থেকে যার আর্থিক মূল্য ২ দশমিক ৪২ বিলিয়ন ডলার। মূলত মোবাইল সম্পর্কিত জনগণের দেওয়া কর থেকেই এ পরিমাণ রাজস্ব আয় হয় সরাকারের।

এক্ষেত্রে এশিয়ার অন্যান্য অনেক দেশের চেয়ে বেশ এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। বর্তমানে আমাদের মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা ৫৩ শতাংশ। এদের মধ্যে ইন্টারনেট ব্যবহার করে মোট ৩৩ শতাংশ মানুষ। অন্যদিকে থ্রিজি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০ শতাংশ। উপযুক্ত পরিবেশ এবং প্রয়োজনীয় নীতিমালা গ্রহণ করা হলে এ খাতে বাংলাদেশ আরও অনেক দূর এগিয়ে যাবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

জিএসএমএ ইন্টেলিজেন্স আশা করছে আগামী কয়েক বছরে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে মোবাইল শিল্পের অবদান আরও বাড়বে। এক হিসেব থেকে তারা জানায়, ২০২০ সালের মধ্যে এ আয় বেড়ে দাঁড়াবে ১৭ বিলিয়ন ডলারে। তবে এ জন্য মোবাইল শিল্পের উপযুক্ত পরিবেশ প্রয়োজন। ২০২০ সালের মধ্যে এ খাতে কর্মসংস্থান বেড়ে দাঁড়াবে ৮ লাখ ৫০ হাজারে। সব মিলিয়ে শিল্পটি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলেই মনে করে জিএসএমএ।

সূত্র: ইয়াহু ফিনান্স

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

অর্থনীতি এর অারো খবর