বিপিএলের ইতিহাসে সর্বনিম্ন রানে অলআউট বরিশাল
বিপিএলের ইতিহাসে সর্বনিম্ন রানে অলআউট বরিশাল
সংগীতা ঘোষ
২০১৫-১২-০৬ ২০:৪৬:৫১
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আসরে ক্রিস গেইলের প্রথম ম্যাচে ৯ উইকেটে হেরেছে তার দল বরিশাল বুলস। ৮ বলে ৭ রান করে আউট হয়েছেন প্রথম ম্যাচেই সেঞ্চুরি করতে আসা গেইল। বিপিএলের ইতিহাসে সর্বনিম্ন রানে অলআউট হয়ে আজ রেকর্ডও গড়েছে দলটি।

রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিপিএলের ২১তম ম্যাচে মাত্র ৫৮ রানে অলআউট হয় বরিশাল। টসে হেরে ব্যাট করতে নামা বরিশাল বুলসের দুই ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের রান করেন।

১৬ ওভারে অলআউট হওয়া বরিশালের ৫৮ রান বিপিএলের তিন আসরে সর্বনিম্ন সংগ্রহ। এর আগে ২০১৩ সালে বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে ৬৭ রানে অলআউট হয়েছিল খুলনা রয়্যাল বেঙ্গলস। ৯০ রানে ওই ম্যাচ জিতেছিল চট্টগ্রাম কিংস।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারের শেষ বলে প্রথম উইকেট হারানো বরিশাল আজ নিয়মিত বিরতিতে ইউকেট হারাতে থাকে। রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ শহীদ, রবি বোপারা ও শহিদ আফ্রিদির বোলিংয়ের সামনে মোহাম্মদ সামি (১৬) ও এভিন লুইস (১২) ছাড়া বরিশালের আর কোনো ব্যাটসম্যান দাঁড়াতেই পারেননি। ৯ বল খেলে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ করেন মাত্র দুই রান।

৪ ওভার বল করে ১২ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন ইংলিশ বোলার রবি বোপারা। দশম ওভারের দ্বিতীয়, চতুর্থ ও শেষ বলে যথাক্রমে সাব্বির রহমান, সিকুগে প্রসন্ন ও মেহেদি মারুফকে সাজঘরে পাঠান এই অলরাউন্ডার।

৪ ওভার বল করে একটি মেডেনসহ মাত্র ৫ রানে দুটি উইকেট নিয়েছেন মুশফিকুর রহিমের বদলে অধিনায়ত্ব করতে নামা আফ্রিদি। টি-২০তে ৪ ওভার বোল করে রান কম দেওয়ার এটিই রেকর্ড। এর আগে বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে চিটাগাং কিংসের জ্যাকব ওরাম ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের বিপক্ষে ৪ ওভারে মাত্র ৭ রান দিয়েছিলেন।

এছাড়া জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেন ও মোহাম্মদ শহীদ দুটি করে উইকেট পেয়েছেন।

৫৯ রানের সহজ লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোচট খায় সিলেট সুপারস্টার্স। ইনিংসের পঞ্চম বলেই ওপেনার দিলশান মুনাবিরাকে ফিরিয়ে দেন বরিশাল বুলসের পাকিস্তানি বোলার মোহাম্মদ সামি। এবার বিপিএলের একাধিক ম্যাচে অল্প রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শেষ পর্যন্ত অল্প রানে হেরে বিদায় নেওয়া সিলেটের জন্য তাই বিষয়টি বিব্রতকর হয়ে দাঁড়ায়।

তবে অপর ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকী ও ওয়ান ডাউনে খেলেতে নামা নূরুল হাসান সিলেটকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। অপরাজিত ৩৪ রানের জন্য ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন জুনায়েদ; নূরুল ২৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। সিলেট সুপারস্টার্সকে আজ জয়ের জন্য ১১ ওভার ২ বল খেলতে হয়েছে। সূত্র: ক্রিকইনফো

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ক্রীড়া এর অারো খবর