বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি: তদন্ত প্রতিবেদন যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে
বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি: তদন্ত প্রতিবেদন যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০১-১২ ২৩:১৪:৫৫
প্রিন্টঅ-অ+


প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটিগুলোর সব প্রতিবেদনের একটি সার সংক্ষেপ তৈরি করছে মন্ত্রণালয়। সারসংক্ষেপ তৈরির পর এটি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টি জানানো হয়। কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ফারুক খান বলেন, ‘বিমানের যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য গঠিত তদন্ত কমিটিগুলোর সব প্রতিবেদনই প্রায় একই ধরনের। তিনটি তদন্ত প্রতিবেদনের একটি সারসংক্ষেপ করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠাবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। আমরা কমিটির পক্ষ থেকে দ্রুত পাঠানোর সুপারিশ করেছি।’

বৈঠকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে যে সব সংস্থার অকেজো বিমান রয়েছে, সেগুলো দ্রুত সরিয়ে নিতে সুপারিশ করা হয়েছে। সরিয়ে না নিলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়াসহ কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তার একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন কমিটির পরবর্তী বৈঠকে পেশ করার সুপারিশ করা হয়। এছাড়া বিমানের রক্ষণাবেক্ষণ ব্যবস্থা আরও উন্নত করা এবং বিমানকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরিচালনা পর্ষদকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ারও সুপারিশ করা হয় ।

কোনও হোটেলে নিয়মিত হাউস গেস্ট হিসেবে বিদেশি শিল্পী রাখা যাবে না বলে কমিটি সুপারিশ করেছে। এছাড়া দেশীয় সংস্কৃতি প্রসারের স্বার্থে হোটেলগুলোতে দেশীয় শিল্পীদের অগ্রাধিকার দেওয়ার বিষয়ে সুপারিশ করা হয়।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবারের বৈঠকসহ বিগত কয়েকটি বৈঠকে সোনারগাঁও হোটেলের সংস্কার কাজের ধীরগতি নিয়ে সংসদীয় কমিটির সদস্যরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এক্ষেত্রে অর্থ নয়ছয়েরও অভিযোগ তোলা হয় কমিটির পক্ষ থেকে। এজন্য সংস্কার কাজের সার্বিক বিষয়ে পরিদর্শন করে রিপোর্ট করতে গত ২৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে তানভীর ইমামকে আহ্বায়ক করে সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবারের বৈঠকে ওই সাব কমিটিকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে স্থায়ী কমিটির সভাপতি বলেন, ‘সোনারগাঁও হোটেলের সংস্কার কাজের ধীর গতি নিয়ে কমিটির ক্ষোভ রয়েছে। এ বিষয়ে আগেও কমিটি অনেক সুপারিশ করেছে। কিন্তু বাস্তবায়িত হয়েছে বলে মনে হয়নি। এ জন্য আমরা একটা সাব কমিটি গঠন করেছি। এই সাব কমিটিকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সার্বিক বিষয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।’

কমিটির সভাপতি ফারুক খানের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, কামরুল আশরাফ খান ও রওশন আরা মান্নান বৈঠকে অংশ নেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর