জেল থেকে পালিয়ে সেলফি!
জেল থেকে পালিয়ে সেলফি!
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৭-০১-০৪ ০০:১৯:২১
প্রিন্টঅ-অ+


ব্রাজিলের উত্তরাঞ্চলীয় শহর মানুসের একটি কারাগার থেকে পালানোর পর এক ব্যক্তি সেলফি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। আজ মঙ্গলবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

ব্রায়ান ব্রেমার নামের ওই ব্যক্তি ডাকাতির দায়ে কারাদণ্ড ভোগ করছিলেন। তাঁর পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে, গভীর বনের ভেতরে বুড়ো আঙুল দেখাচ্ছেন তিনি। আর তাঁর পাশেই রয়েছেন আরেকজন পলাতক আসামি। তিনিও বুড়ো আঙুল দেখাচ্ছেন। তবে পুলিশ জানিয়েছে, ব্রায়ানের সঙ্গে ছবি তোলা ওই ব্যক্তিকে তারা গ্রেপ্তার করেছে।

ওই দুজনসহ ৭২ জন বন্দী গত রোববার উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য অ্যামাজোনাসের মানুস শহরের অ্যানতোনিও ত্রিনিদাদ কারাগার থেকে পালিয়ে যান। এর কয়েক ঘণ্টা পর পাশের অ্যানিসিও জোবিম কারাগারে ভয়াবহ সহিংসতায় ৫৬ জন নিহত হয়। ওই কারাগার থেকে পালিয়ে যায় ১১২ জন বন্দী।

কারাবন্দীদের ইন্টারনেট ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও কারাগারে থাকা অবস্থাতেই ব্রায়ান ফেসবুকে সক্রিয় ছিলেন। তবে জেল থেকে পালানোর পর ফেসবুকে দেওয়া তাঁর পোস্টগুলো ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ে।

প্রথম পোস্টের ছবিতে দেখা গেছে, একজন পলাতক আসামির সঙ্গে বায়ার্ন মিউনিখ ক্লাবের কর্দমাক্ত জার্সি পরে রয়েছেন বায়ার্ন। সঙ্গে থাকা বার্তায় লেখা রয়েছে, ‘জেল থেকে পলায়ন’। আরেকটি ছবিতে দেখা গেছে, একই রকম জঙ্গলে চারজনের সঙ্গে ফল খাচ্ছেন বায়ার্ন।

বায়ার্নের ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি বর্তমানে মুছে ফেলা হয়েছে। তবে বায়ার্নের নামে বেশ কিছু ব্যঙ্গাত্মক অ্যাকাউন্ট চালু রয়েছে। এসব অ্যাকাউন্টে দেখা গেছে, ব্রায়ান ও তাঁর পলাতক অনুসারীদের জেল থেকে পালানো সংক্রান্ত নাটক, ‘দ্য শোয়াশওয়ান্ক রিডেম্পশন’, টিভি সিরিজ ‘প্রিজন ব্রেক’ ও ‘দ্য কোল্ড লাইট অব ডেস’সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের নায়ক হিসেবে দেখানো হয়েছে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিচিত্রিতা এর অারো খবর