১২ ঘণ্টায়ও নেভেনি ডিএনসিসি মার্কেটের আগুন
১২ ঘণ্টায়ও নেভেনি ডিএনসিসি মার্কেটের আগুন
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৭-০১-০৩ ১৩:৫২:০০
প্রিন্টঅ-অ+


রাজধানীর গুলশান-১ নম্বরের ডিসিসি বা ডিএনসিসি মার্কেটে লাগা আগুন ১২ ঘণ্টায়ও নেভেনি। আগুন লাগার পর মার্কেটের একাংশ ধসে পড়েছে।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে এই মার্কেটে আগুন লাগে। আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত আগুন নেভানো সম্ভব হয়নি।

ফায়ার সার্ভিসের ২২টি ইউনিট আগুন নেভাতে কাজ করছে। এই তথ্য জানিয়ে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বরত কর্মকর্তা এনায়েত হোসেন বলেন, আগুন নেভাতে কতটা সময় লাগতে পারে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

আগুন নেভাতে নৌবাহিনীও কাজ করছে।

আগুন লাগার কারণ জানতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) মেজর শাকিল নেওয়াজ এই তথ্য জানিয়েছেন।

ঘটনাস্থলে থাকা ফায়ার সার্ভিসের পরিদর্শক শরিফুল ইসলাম বলেন, মার্কেটের বিভিন্ন স্থানে আগুন জ্বলছে। এক জায়গায় কিছুটা নিভলে অন্য দিকে জ্বলে উঠছে। পানি দ্রুত ফুরিয়ে যাচ্ছে। নতুন করে পানি আনতে সময় লাগছে। এসব কারণে আগুন নেভাতে বেগ পেতে হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিদের ভাষ্য, আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসেন। তাঁরা রাতভর চেষ্টা করেও আগুন নেভাতে পারেননি; বরং আগুন ছড়িয়েছে। দুপুর ১২টার দিকেও মার্কেটের ভেতরে আগুন জ্বলতে দেখা গেছে। মার্কেট থেকে কালো ধোঁয়ার কুণ্ডলী বের হচ্ছে।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, আগুন লাগার একপর্যায়ে মার্কেটের কাঁচাবাজার অংশের ভবন ধসে পড়ে। এরপর একাধিকবার ধসের ঘটনা ঘটে।

সকালে ঘটনাস্থলে এসে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, আগুনটা বেশ বড় মাপেরই। আগুনে দোকানপাট-মালামালের ক্ষয়ক্ষতি হলেও জীবনহানির কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

আনিসুল হক আরও বলেন, আগুন নেভাতে সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে। আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণেও এসেছে। পানির স্বল্পতা আছে। তবে যেখান থেকে সম্ভব, পানি আনা হচ্ছে। আগুন যাতে আশপাশে ছড়িয়ে না পড়ে, এ জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

আগুন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় পাশের গুলশান শপিং কমপ্লেক্সের দোকান থেকে মালামাল সরিয়ে নিতে দেখা গেছে।

আগুনের ঘটনায় গুলশান ১ নম্বর ও এর আশপাশের এলাকার সড়কে প্রচণ্ড যানজট সৃষ্টি হয়েছে। মালামাল সরানো এবং ফায়ার সার্ভিসসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চলাচলের জন্য গুলশান ১ নম্বর চত্বর থেকে শুটিং ক্লাব পর্যন্ত সড়কে সাধারণ যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আগুন লাগার খবর পেয়ে রাতেই অনেক দোকানমালিক ও কর্মচারী ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। আগুন নিয়ন্ত্রণে না আসায় তাঁরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কেউ কেউ তাঁদের ব্যবসায়িক ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

মো. সালাউদ্দিন নামের এক দোকানমালিক অভিযোগ করেন, ফায়ার সার্ভিস যথেষ্ট তৎপর না। তারা ধীর গতিতে কাজ করছে। তারা সক্রিয় থাকলে অনেক আগেই আগুন নেভানো সম্ভব হতো।

ডিএনসিসি পাকা মার্কেট দোকান মালিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আখতারুজ্জামান এ অভিযোগ করেন, এই আগুন লাগার পেছনে ষড়যন্ত্র আছে।

তবে এই ঘটনার পেছনে নাশকতা দেখছেন না ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক। তিনি বলেন, বৈদ্যুতিক ত্রুটি থেকে আগুন লাগতে পারে বলে তাঁর ধারণা।

ডিসিসির এই মার্কেটে হাজারো দোকান আছে বলে সেখানকার কয়েকজন মালিক জানিয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর