২০১৬ সালের সেরা প্রযুক্তিপণ্য
২০১৬ সালের সেরা প্রযুক্তিপণ্য
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১২-২৯ ২১:১২:২৭
প্রিন্টঅ-অ+




প্রতিনিয়ত প্রযুক্তি বদলায়। নতুন কিছু যোগ হয়। তবে এর মধ্যে এমন কিছু প্রযুক্তি আসে, যা যন্ত্র ব্যবহারের অভিজ্ঞতা পাল্টে দেয়। বছর শেষে এমনই কিছু যন্ত্রের উল্লেখ থাকছে এখানে। সূত্র: মিরর, এনগেজেট, গিজমোডো

.সেরা ডিজিটাল সহকারী
গুগল হোম
হয়তো আমাজন ইকোর সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়েই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ডিজিটাল সহকারী কাম স্পিকার ‘গুগল হোম’ বাজারে ছেড়েছে সার্চ ইঞ্জিনভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি। ইকোর চেয়ে যদিও গুগল হোম থেকে পাওয়া শব্দের মান অনেক ভালো, তবে খুব জোরে যখন বাজে তখন যন্ত্রটি কোনো কণ্ঠ নির্দেশ গ্রহণ করে না। আর ইকোর চেয়ে নির্দেশ গ্রহণ করার সংখ্যাও কম। তবে যন্ত্রটি গত অক্টোবরে বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ধীরে ধীরে উন্নয়নের কাজ চলছে। যুক্তরাজ্যে দাম ১৩০ ডলার।

.সেরা ভিআর হেডসেট
প্লেস্টেশন ভিআর
২০১৬ সালটির অন্যতম আকর্ষণ ছিল ভার্চ্যুয়াল রিয়ালিটি যন্ত্র। বিশেষ করে ওকুলাস রিফট ও এইচটিসি ভাইভের কথা বলতে হয়। তবে গেমিংয়ের জন্য এর কোনোটিই প্লেস্টেশন ভিআরের সমকক্ষ নয়। দাম তুলনামূলক কম, সহজে সেটআপ করে নেওয়া যায়। তবে এটি কাজ করে প্লেস্টেশন গেমিং কনসোলের সঙ্গে। তবে দুনিয়াজোড়া প্লেস্টেশন ব্যবহারকারীর সংখ্যাও কম না, পাঁচ কোটির বেশি। দাম ৪০০ ডলার।
.সেরা অ্যাকশন ক্যামেরা
গোপ্রো হিরো ৫
বছরজুড়ে সেরা যন্ত্রের তালিকা করতে গেলে গোপ্রো ক্যামেরার সেখানে স্থান পাওয়ার কথা নয়। কারণ গোপ্রো এখন অনেকটা অভ্যাসের মতো হয়ে গেছে, বিশেষ করে যাঁরা খেলাধুলা এবং অ্যাডভেঞ্চার পছন্দ করেন। তবু সেরা অ্যাকশন ক্যামেরা হিসেবে গোপ্রোর হিরো৫-এর নাম লিখতে হয়। ক্যামেরাটি চমৎকার। চমক নেই বলেই চমৎকার। আকারে ছোট, ব্যবহার করা সহজ, বহন করা সহজ, আলাদা কোনো কেসিং ছাড়াই গোপ্রোর এই সংস্করণ পানিরোধী। দাম ৩৯৯ ডলার।

.সেরা গেমিং কনসোল
প্লেস্টেশন ৪ প্রো
প্লেস্টেশন ভিআরের জন্য সেরা গেমিং কনসোল প্লেস্টেশন ৪ প্রো। হার্ডওয়্যার উন্নয়নের ফলে এতে উচ্চ রেজল্যুশনের গেম খেলা যায়। বিশেষ করে বর্তমানের ফোরকে ও হাই ডাইনামিক রেঞ্জ (এইচডিআর) সুবিধার টিভির জন্য নতুন এই প্লেস্টেশনের জুড়ি নেই। গত নভেম্বরে বাজারে ছাড়ার সময় দাম বলা হয়েছিল ৩৯৯ ডলার।
.সেরা কম্পিউটার
মাইক্রোসফট সারফেস স্টুডিও
অ্যাপলের ম্যাকবুক প্রো প্রকাশের এক দিন আগে মাইক্রোসফট বাজারে আনে সারফেস স্টুডিও অল-ইন-ওয়ান ডেস্কটপ কম্পিউটার। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তুলনামূলক আলোচনায় লেগে পড়েন। ব্যবহারকারীর মন জয়ের আগে মাইক্রোসফটের নতুন স্পর্শকাতর পর্দার এই ডেস্কটপ মন জয় করে সেই বিশেষজ্ঞদের। সারফেস পেন ব্যবহার করার সুযোগ যেমন আছে এতে, সঙ্গে যোগ হয়েছে সারফেস ডায়াল।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর