যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ঢাবি শিক্ষক বরখাস্ত
যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ঢাবি শিক্ষক বরখাস্ত
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১২-২৯ ১৪:৩২:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+


ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ওই সহযোগী অধ্যাপককে এর আগেও ২০১১ সালে যৌন হয়রানির অপরাধে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল।
বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘যৌন হয়রানির বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে। এই অপরাধে গত দুই বছরে আরও কয়েকজন শিক্ষক বরখাস্ত হয়েছেন।’
যৌন হয়রানির দায়ে এ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব শিক্ষককে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে তারা হলেন নাট্যকলা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. সাইফুল ইসলাম, আরবি বিভাগের শিক্ষক ড. ফকরুদ্দিন। এ ছাড়া একই অপরাধে পুরো পেনশন বাতিল করা হয়েছে গণিত বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. নুরুল ইসলামের।
সর্বশেষ মঙ্গলবার রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ওই সহযোগী অধ্যাপককে বরখাস্ত করা হলো।
বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে আরও জানা গেছে, মঙ্গলবারের এই সিন্ডিকেট সভায় পিএইচডি থিসিস নকল করার অভিযোগে ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ওমর ফারুককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
ওমর ফারুক দু’জন তুর্কি অধ্যাপকের পিএইচডি গবেষণাপত্র নকল করেছেন। বিষয়টি তদন্তের জন্য বিশ্বাবদ্যালয়ের প্রো-ভিসির নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন।


ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিবিধ এর অারো খবর