জেতার লক্ষ্য নিয়েই দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাঠে নামবে মাশরাফিরা
জেতার লক্ষ্য নিয়েই দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাঠে নামবে মাশরাফিরা
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১২-২৮ ২১:০৩:৩৮
প্রিন্টঅ-অ+


ক্রাইস্টচার্চের প্রথম ওয়ানডে ৭৭ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। সিরিজে ফিরতে হলে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর বিকল্প নেই সফরকারীদের সামনে। মাশরাফিও সেটা জানেন, আর জানেন বলেই দ্বিতীয় ম্যাচটি জেতার ব্যাপারে আশাবাদী বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক।

২০১৫ সালের বিশ্বকাপে এই মাঠেই বাংলাদেশ বড় রান তাড়া করে স্কটল্যান্ডকে হারিয়েছিল। এবার তাদের সামনে শক্তিশালী নিউজিল্যান্ড। প্রথম ম্যাচটি ৭৭ রানে হেরে মানসিকভাবে পিছিয়ে থাকাটাই স্বাভাবিক। যদিও মাশরাফিরা কেউই প্রথম ম্যাচ নিয়ে একটুখানিও ভাবছেন না। তাদের ভাবনা এখন নেলসনে দ্বিতীয় ম্যাচে ভালো করে সিরিজে সমতা ফেরানো।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে কিউইদের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি ও চ্যানেল নাইন।

স্বাগতিকদের মুখোমুখি হওয়ার আগে এই মাঠের সুখস্মৃতিই ফিরে ফিরে আসছে। হয়তো এই সুখস্মৃতিই টাইগারদের অনুপ্রেরণা জোগাবে। তবে বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় দুঃসংবাদ মুশফিকের ইনজুরি।

ক্রাইস্টচার্চে প্রথম ম্যাচে রানআউট থেকে বাঁচতে ডাইভ দিয়ে বাঁ পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পান মুশফিক। এই ইনজুরি তাকে মাঠের বাইরে ছিটকে দিয়েছে দুই সপ্তাহের জন্য। সেই সঙ্গে মুস্তাফিজকে এই ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সাকিবের দিকে তাকিয়ে গোটা বাংলাদেশ
সবমিলিয়ে তাই কঠিন পরিস্থিতি বাংলাদেশ শিবিরে। মুস্তাফিজের বদলে দলে দেখা যেতে পারে শুভাশিষ রায়কে। এছাড়া মুশফিকের বদলে নুরুল হাসান সোহানের একাদশে থাকা একরকম নিশ্চিতই। আরও একটি পরিবর্তন আসতে পারে, দেখা যেতে পারে লেগ স্পিনার তানভীর হায়দারকে। সেক্ষেত্রে হয়তো সৌম্যকে থাকতে হবে একাশের বাইরে।

এমন সব কঠিন পরিস্থিতি যখন বাংলাদেশের সামনে, তখন প্রেরণা হিসেবে আসছে গত বিশ্বকাপের সুখস্মৃতি। নেলসনে এই মাঠেই স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে জয় তুলে নিয়েছিল টাইগাররা। যেনতেন জয় ছিল না, ৩১৯ রানের বিশাল এক লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছিল বাংলাদেশ।

ওই ম্যাচে টস জিতে স্কটল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন মাশরাফি। ম্যাচটি আবার বাংলাদেশের ছিল জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা গ্রুপে এই স্কটল্যান্ডকেই সবচেয়ে সহজ প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছিল লাল-সবুজরা। যদিও আফগানিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। তবুও স্কটিশদের এই ম্যাচে হারাতে পারলেই কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন দেখতে পারবে তারা। কিন্তু টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের সামনে ৩১৮ রানের বিশাল এক স্কোর দাঁড় করিয়ে দেয় স্কটিশরা। কাইল কোয়েৎজার ১৩৪ বলে ১৫৬ রানের বিশাল এক ইনিংস খেলে একাই বাংলাদেশের বোলারদের ছত্রখান করে ফেলেন। শঙ্কার কালো মেঘ জমতে শুরু করে বাংলাদেশের সমর্থকদের হৃদয়ে।

উইকেটের পেছনে দেখা যাবে নুরুল হাসানকে
তবে উজ্জীবিত বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা ৩১৮ রান দেখে ভড়কে যাননি। তামিম-মাহমুদউল্লাহ-মুশফিক-সাকিব-সাব্বিরের ব্যাটে অসাধারণ এক জয় ‍তুলে নেয় বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্সের ওপর দাঁড়িয়ে ১১ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটের জয় তুলে নেয় মাশরাফির দল।

ক্রাইস্টচার্চে হারের পরও তাই নেলসনের ওই বিশ্বকাপ ম্যাচ অনুপ্রেরণা জোগাবে বাংলাদেশকে। তামিম-মাশরাফি-সাব্বির-সাকিব সবার খুব ভালো করেই মনে আছে ওই দিনটির কথা। স্যাক্সটন ওভালের সেই স্মৃতিটা হয়তো ফিরে আসবে বৃহস্পতিবার সকালেও!

বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালেরও বিশ্বাস, আগের ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে নেলসনেই ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ। জয়ের সম্ভাবনাই বেশি দেখছেন তামিম।

সোমবার ক্রাইস্টচার্চে প্রথম ওয়ানডেতে ৭৭ রানে হারে বাংলাদেশ। সিরিজে ফিরতে হলে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর বিকল্প নেই সাকিব-তামিমদের সামনে। মাশরাফিও সেটা জানেন, আর জানেন বলেই দ্বিতীয় ম্যাচটি জেতার ব্যাপারে আশাবাদী বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ক্রীড়া এর অারো খবর