গ্রামীণফোনের স্পন্সরশিপ চুক্তিতে অনিয়মের অভিযোগ
গ্রামীণফোনের স্পন্সরশিপ চুক্তিতে অনিয়মের অভিযোগ
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-১২-১৭ ০১:২২:১৩
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশের শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন অন্তত ১১টি স্পন্সরশিপ চুক্তির ক্ষেত্রে অভ্যেন্তরীণ নীতিমালা ভেঙেছে বলে কোম্পানির মূল মালিক টেলিনরের নিরীক্ষায় বেরিয়ে এসেছে। গত সোমবার টেলিনরের ওয়েবসাইটে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘অভ্যন্তরীণ নীতিমালা ভঙ্গের এ ঘটনা গ্রহণযোগ্যপ নয়। এ বিষয়ে ইতোমধ্যেই সংশোধন ও প্রতিরোধমূলক ব্যরবস্থা নেয়া হয়েছে।’

টেলিনর জানিয়েছে, এসব স্পন্সরশিপ চুক্তির মধে্য বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী সংশ্লিষ্ট একটি ক্রীড়া আয়োজনের পৃষ্ঠপোষকতার ক্ষেত্রে নীতিমালার সবচেয়ে বড় ব্যতয় ঘটানো হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, পুলিশ ক্যালন্টিনের সংস্কার এবং পুলিশের একটি টেলিফোন ডিরেক্টরি প্রকাশে অর্থ সহায়তা এবং দুই সাংবাদিকের পশ্চিম আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা সফরের ভ্রমণ ব্যায় বহনের ক্ষেত্রেও অনিয়মের প্রমাণ পেয়েছেন টেলিনরের নিরীক্ষকরা।

১৯৯৭ সালের ২৬ মার্চ যাত্রা শুরু করা গ্রামীণফোনের গ্রাহক সংখ্যা বর্তমানে সাড়ে পাঁচ কোটির বেশি, যা দেশের মোট মোবাইল ফোন সেবাগ্রহীতার প্রায় অর্ধেক। এ কোম্পানির ৫৫ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ারের মালিক নরওয়ের টেলিনর। বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের মোট বাজার মূলধনের ১০ শতাংশের বেশি গ্রামীণফোনের।

টেলিনর জানিয়েছে, গ্রামীণফোনের স্পন্সরশিপ চুক্তিতে অনিয়মের বিষয়টি তাদের অভ্যন্তরীণ নিরীক্ষায় প্রথম ধরা পড়ে ২০০৩ সালে। ওই নিরীক্ষা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে স্পন্সরশিপ নীতিমালা পর্যালোচনার পাশাপাশি সব ধরনের স্পন্সরশিপ অনুমোদনের জন্য্ একটি কমিটি করে দেয়া হয় কোম্পানির পক্ষ থেকে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর