হিন্দু শিক্ষার্থীদের ‘খাসির মাংস বলে গরুর মাংস’ খাওয়ানোর অভিযোগে সেসার কার্যক্রম স্থগিত
হিন্দু শিক্ষার্থীদের ‘খাসির মাংস বলে গরুর মাংস’ খাওয়ানোর অভিযোগে সেসার কার্যক্রম স্থগিত
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১১-৩০ ১৩:১৪:৩৯
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) হিন্দু শিক্ষার্থীদের ‘খাসির মাংস বলে গরুর মাংস’ খাওয়ানোর অভিযোগে আয়োজক সংগঠন ‘সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং স্টুডেন্ট’স অ্যাসোসিয়েশনের (সেসা) সব কার্যক্রম স্থগিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।
গত ২৬ নভেম্বর আনোয়ার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পৃষ্ঠপোষকতায় ‘বুয়েট-আনোয়ার ইস্পাত প্রথম বাংলাদেশ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং সামিট’এর আইকন অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান শেষে খাবার পরিবেশনের সময় এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার পর থেকেই সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং সামিটের আয়োজক সংগঠন সেসা’র দায়িত্বপ্রাপ্ত দুজন শিক্ষক অধ্যাপক বদরুজ্জামান ও সহযোগী অধ্যাপক তানভীর মঞ্জুরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতি ও সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়ে আন্দোলনে নামেন বিশ্ববিদ্যালয়ের একাংশের শিক্ষার্থীরা। এর দাবিতে ২৬ নভেম্বর রাতে বিক্ষোভ মিছিল ও ২৭ নভেম্বর সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার সংলগ্ন প্রধান ফটকে তালা দিয়ে ভেতরে অবস্থান নেন আন্দোলনকারীরা। সব ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করেন তারা।
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের প্রেক্ষিতে ২৭ নভেম্বর রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. এন এম গোলাম জাকারিয়া সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ঘটনাটি ‘অনাকাঙ্ক্ষিত’উল্লেখ করে বুয়েট কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে দুঃখ প্রকাশ করা হয়। একই সঙ্গে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় এবং তদন্ত কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেওয়া হয়।
এদিকে আয়োজক সংগঠনের কার্যক্রম স্থগিত ও তদন্ত কমিটি গঠন করায় ক্লাসে ফিরেছেন শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনকারীদের একজন রাহুল রায় বলেন, আমরা আজ (মঙ্গলবার) থেকে ক্লাসে ফিরেছি। আশা করি তদন্ত কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতের দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এর আগে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পাঁচ দিনব্যাপী ‘বুয়েট-আনোয়ার ইস্পাত প্রথম বাংলাদেশ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং সামিট’এর চতুর্থ দিন ছিল ২৬ নভেম্বর। রাতে আইকন অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান শেষে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীসহ উপস্থিত সবাইকে রাতের খাবার হিসেবে গরুর মাংসের তেহারি পরিবেশন করা হয়।
সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী প্রকাশ বিশ্বাস অভিযোগ করে বলেন, ইচ্ছাকৃতভাবে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য এ কাজ করা হয়েছে। বারবার জিজ্ঞাসাবাদ করার পরও খাসির মাংস বলে গরুর মাংস খাওয়ানো হয়েছে।
‘বুয়েট-আনোয়ার ইস্পাত প্রথম বাংলাদেশ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং সামিট’আয়োজক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে ‘সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং স্টুডেন্ট’স অ্যাসোসিয়েশন (সেসা)। অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, শনিবার আইকন অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের দায়িত্ব ছিল সামিটের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান আনোয়ার গ্রুপের। তারাই রাতের খাবারের আয়োজন করেছে।
এদিকে আনোয়ার গ্রুপ চতুর্থদিনের অনুষ্ঠান আয়োজন ও খাবারের দায়িত্ব দেয় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান লেভেল ক্রসিংকে। তারাই রাতের খাবার পরিবেশন করেন। খাবারে খাসির মাংস দেওয়ার কথা ছিল জানান সেসা’র দায়িত্বশীলরা। খাসির পরিবর্তে গরুর মাংস আসায় সেসা’র কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন লেভেল ক্রসিং কর্তৃপক্ষ।
সেসা’র স্টুডেন্ট কো-অরডিনেটর তৌশিক রহমান জানান, প্রথম তিনদিন আমরা সফলভাবে অনুষ্ঠান আয়োজন করতে সক্ষম হই। গত শনিবার(২৬ নভেম্বর) অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান আনোয়ার গ্রুপ দ্বারা পরিচালিত হয়। খাবারের বেলা খাসি বলে গরু দেওয়ায় আমরাও কষ্ট পেয়েছি। এ ঘটনায় যারা খাবার সরবরাহ করেছে তারা ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছে।
এ ঘটনায় আনোয়ার গ্রুপ ও লেভেল ক্রসিংসের ৪ জন দায়িত্বশীলকে ডেকে পাঠায় শাহবাগ থানা পুলিশ। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে থানায় কোনও অভিযোগ না থাকায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবু বকর সিদ্দিক।
পুরো বিষয়টি নিয়ে সেসা’র মডারেটর সহযোগী অধ্যাপক তানভীর মঞ্জুর বলেন, ‘বিগত কয়েকমাস ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করার পর আমরা সফলভাবে আয়োজন করতে পেরেছি। কিন্তু শেষদিকে এসে এতো বড় ও সেন্সেটিভ ঘটনা ঘটবে, এটা সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত। এজন্য অবশ্যই আমরা দুঃখিত, লজ্জিত।’

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর