‌মাত্র ৫ সেকেন্ডেই বিপদ সংকেত পৌঁছে যাবে পুলিশের কাছে
‌মাত্র ৫ সেকেন্ডেই বিপদ সংকেত পৌঁছে যাবে পুলিশের কাছে
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-১১-১২ ১৮:৫২:১০
প্রিন্টঅ-অ+


ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হক বলেছেন, ঢাকাবাসীর জন্য ‘নগর’ নামে একটি অ্যাপ তৈরি করেছি আমরা। যার মাধ্যমে পরিবারের কোনো সদস্য বিপদে পড়লে মাত্র ৫ সেকেন্ডেই সে বার্তা পৌঁছে যাবে অভিভাবক ও পুলিশের কাছে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর বসুন্ধরায় গ্রামীণফোনের প্রধান কার্যালয়ে স্মার্টসিটি হ্যাকাথনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা জানান মেয়র। এসময় গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার ইয়াসির আজমান, চিফ টেকনোলজি অফিসার মেদহাত এল হোসাইনী, ইউএনডিপি -এর পরিচালক নিক বেরেসফোর্ড এবং ওয়াটার এইড -এর কান্ট্রি ম্যানেজার খায়রুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। টানা ৩৬ ঘণ্টা চলার পর শনিবার শেষ হবে এই আয়োজন। এসময় মেয়র আরো বলেন, ঢাকা শহরের অনেক সমস্যা আছে। তোমাদের মতো তরুণ উদ্ভাবকরা এসব সমাধানে আমাদের সাহায্য করতে পার। এটা দেখে ভালো লাগছে যে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো বিভিন্ন নাগরিক সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসছে। তিনি বলেন, আমাদের দেশের মেধাবী সন্তানরা কাজ করছেন বিশ্বের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানে। মাইক্রোসফট-এ কর্মরত মেধাবী তরুণ জামিলের মাধ্যমে আমরা ‘নগর’ নামে একটি অ্যাপটি তৈরি করেছি। এর মাধ্যমে যে কেউ ইচ্ছে করলে নগরের যেকোনো সমস্যা আমাদের ছবি তুলে পাঠিয়ে দিতে পারেন। সে অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নেবো।

অ্যাপটির মাধ্যমে যে কেউ বিপদে পড়লে তা তার অভিভাবককে মাত্র ৫ সেকেন্ডে জানাতে পারবেন। শুধু তাই নয়, বিপদ সংকেতটি চলে যাবে পুলিশ কন্ট্রোল রুমেও। অন্যদিকে ঢাকাকে স্মার্টসিটি করে গড়ে তোলা খুব সহজ কাজ নয় বলেও মনে করছেন উত্তরের এই মেয়র। তিনি বলেন, মেয়র হওয়ার আগে অনেক কমিটমেন্ট করেছিলাম। ইতিমধ্যে অনেক সমস্যার সমাধান হয়েছে। আগামী ছয় মাস পর শহরের চিত্র আরো পাল্টে যাবে। তিনি জানান, নগরবাসীর যানবাহন সমস্যা নিরসনে পুরো রাজধানীর ৫শ’ বাস কোম্পানিকে ৬টি কোম্পানির আওতায় আনা হবে। এগুলো ভিন্ন ভিন্ন রঙে চলবে। তাহলে অস্বাভাবিক প্রতিযোগিতা হ্রাস পাবে।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, স্মার্টসিটি হ্যাকাথনে তরুণরা তাদের উদ্ভাবনী চিন্তার মাধ্যমে ঢাকা শহরের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবেন। স্মার্টসিটি এমন একটি ধারণা যার উদ্দেশ্য হলো, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে কোনো শহরের সম্পদগুলো সঠিক ও যুগোপযোগীভাবে ব্যবস্থাপনা ও নাগরিকদের জীবনমান উন্নয়ন করা।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর