আরেকটি সুযোগ পাচ্ছে সিটিসেল
আরেকটি সুযোগ পাচ্ছে সিটিসেল
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-১১-০৪ ১৫:৪৯:১৭
প্রিন্টঅ-অ+


কার্যক্রম চালু করতে আরেকটি সুযোগ পাচ্ছে দেশের প্রথম মুঠোফোন অপারেটর প্যাসিফিক বাংলাদেশ টেলিকম বা সিটিসেল। অপারেটরটির বন্ধ হওয়া তরঙ্গ অবিলম্বে পুনর্বহাল করতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ।
তবে তরঙ্গ ফেরত পেতে হলে ১৯ নভেম্বরের মধ্যে সিটিসেলকে ১০০ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে। এতে ব্যর্থ হলে তাদের তরঙ্গ আবার বন্ধ করে দিতে পারবে বিটিআরসি।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার সদস্যের বেঞ্চ তরঙ্গ পুনর্বহাল চেয়ে সিটিসেলের করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন। আদেশে অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করে সিটিসেলের বকেয়ার অঙ্ক নিয়ে যে মতবিরোধ রয়েছে, তা ৩০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে। পদমর্যাদায় বিটিআরসির কমিশনার ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের যুগ্ম সচিবের নিচে নন এমন একজন কর্মকর্তাও থাকবেন ওই কমিটিতে।

গত ২০ অক্টোবর সিটিসেলের তরঙ্গ বরাদ্দ বাতিল ও কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় বিটিআরসি। বিটিআরসির ওই সিদ্ধান্ত স্থগিত বা পুনরায় তরঙ্গ বরাদ্দের নির্দেশনা চেয়ে সিটিসেল গত ২৪ অক্টোবর উচ্চ আদালতে আবেদন করে। সেদিন আদালত বিষয়টি নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠান।

আদালতে সিটিসেলের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী রোকন উদ্দিন মাহমুদ, এ এম আমিন উদ্দিন ও মোস্তাফিজুর রহমান খান। বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, শেখ ফজলে নূর তাপস ও রেজা-ই রাব্বী খন্দকার।

পরে সিটিসেলের আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, সিটিসেলের বন্ধ করা তরঙ্গ বৃহস্পতিবারের মধ্যেই খুলে দিতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ফলে সিটিসেলের কার্যক্রম চালাতে আইনগত কোনো বাধা নেই।

বিটিআরসি ৪৭৭ কোটি টাকা পাওনা দাবি করলেও তা সংশোধন করে এখন বলছে ৩৯৭ কোটি টাকা। সিটিসেলের হিসাবে পাওনা ২১৬ কোটি টাকা। ইতিমধ্যে মূল্য সংযোজন করসহ (মূসক) ১৪৪ কোটি টাকা জমা দেওয়া হয়েছে। আপিল বিভাগ আরও ১০০ কোটি টাকা জমা দিতে বলেছেন।

বিটিআরসির আইনজীবী রেজা-ই রাব্বী খন্দকার বলেন, দেশে টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষ ও অপারেটরের মধ্যে কোনো বিষয়ে বিরোধ হলে আইনে সেটা নিষ্পত্তির কোনো ব্যবস্থা নেই। আদালত মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন, এ ব্যাপারে তারা যেন চিন্তাভাবনা করে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর