দীপাবলি উৎসবে ফোটানো আতশবাজির বিষাক্ত ধোয়ায় আচ্ছন্ন দিল্লী
দীপাবলি উৎসবে ফোটানো আতশবাজির বিষাক্ত ধোয়ায় আচ্ছন্ন দিল্লী
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১১-০১ ০২:৫৭:০৫
প্রিন্টঅ-অ+


হিন্দুদের ধর্মীয় উৎসব দিওয়ালির পরদিন সকাল থেকে ধোঁয়াশায় ঢেকে গিয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি। দিওয়ালির রাতে প্রচুর প্রদীপ ও আতশবাজি ফোটানোর ফলেই তৈরি হয়েছে এই বিষাক্ত ধোঁয়াশা।

দিল্লি পৃথিবীর সবচেয়ে দূষিত বায়ুসম্পন্ন নগরীগুলোর মধ্যে একটি। রাস্তার ধুলা, উন্মুক্ত স্থানে আগুন জ্বালানো, যানবাহনের নির্গত কালো ধোঁয়া, শিল্প কারখানার নির্গমন ইত্যাদি সহ নানা কারণেই দিল্লির বাতাস অত্যন্ত দূষিত।

কিন্তু দিওয়ালির রাতের পরদিন এই দূষণের মাত্রা নিরাপদ সীমার চেয়ে ৪২ গুণ বেশি বেড়ে গিয়েছে।
সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভারনমেন্টের নির্বাহী পরিচালক অনুমিতা রায়চৌধুরী বলেন, ‘আমরা দূষণের যে মাত্রা দেখতে পাচ্ছি তা রীতিমতো আশঙ্কাজনক। এতই চরম পর্যায়ের দূষণ। দিল্লির বায়ু সারা বছরই খুব দূষিত থাকে। এর ওপর দিওয়ালির কারণে সৃষ্ট দূষণ নেওয়ার কোন ক্ষমতাই দিল্লির নেই।’

তিনি আরও বলেন, ঋতুগত কারণেই বছরের এ সময়ে কিছুটা কুয়াশা পড়ে এবং বাতাস তেমন প্রবাহিত হয় না। ফলে আতশবাজি ও প্রদীপের ধোঁয়া কুয়াশায় আটকে থাকে এবং বিষাক্ত ধোঁয়াশা তৈরি করে।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৫ সালের এক জরিপে দেখা যায় দিল্লির ৪ দশমিক ৪ মিলিয়ন স্কুলগামী শিশুর ফুসফুসের ক্ষমতা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম এবং তারা কখনোই পুরোপুরি স্বাভাবিক হবে না। শ্বাসনালীর রোগে মৃত্যুর হারও ভারতে সবচেয়ে বেশি।

সূত্র: গার্ডিয়ান

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিদেশ এর অারো খবর