রুয়েট ছাত্রলীগের ১৪ দফা দাবি উত্থাপন
রুয়েট ছাত্রলীগের ১৪ দফা দাবি উত্থাপন
শেখ তাজুল ইসলাম তুহিন
২০১৬-১০-৩১ ১১:৪০:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+


রবিবার ৩০শে অক্টোবর বিকেলে উদার, অসাম্প্রদায়িক, স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী, সর্বোপরি প্রগতিশীল ও প্রযুক্তিনির্ভর আন্তর্জাতিক মানের বিশ্ববিদ্যালয়ে মানোন্নয়নের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ১৪ দফা দাবী উত্থাপন করেছে। রুয়েট ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান হিমেলের নেতৃত্বে উপাচার্য বরাবর লিখিত এ দাবি পেশা করা হয়।


দাবি সমূহ -
১। আমাদের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের আলোকে ভাস্কর্য নির্মাণ।
২। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল প্রাঙ্গণে জাতির জনকের প্রতিকৃতি নির্মাণ।
৩। আবাসন সমস্যা নিরসনে ছাত্রদের জন্য ‘ওয়াজেদ মিয়া’ হল এবং ছাত্রীদের জন্য ‘বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব’ হল স্থাপন।
৪।রুয়েটের শিক্ষার্থী এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে শাহাদাৎবরণকারী শহীদদের নামে বিভিন্ন একাডেমিক ভবনের নামকরণ। (সংযুক্তি)
৫। বাংলাদেশের উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত এবং মুক্তিযুদ্ধের পরে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন সহযোগী দেশ জাপানের ছয়জন প্রকৌশলী, যাঁরা গুলশানে জঙ্গি হামলায় শাহাদাৎ বরণ করেন, তাঁদের নামে ছয়টি গবেষণাগারের নামকরণ।(সংযুক্তি)
৬। বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের জন্য পৃথক উপাসনালয় স্থাপন।
৭। শিক্ষার মান বৃদ্ধি এবং গবেষণামূলক কর্মকাণ্ড বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ইনস্টিটিউট স্থাপন।
৮। বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ভবন এবং আবাসিক হলে নিরবিচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সুবিধা প্রদান।
৯। শিক্ষক-ছাত্র কেন্দ্র স্থাপন।
১০। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন প্রগতিশীল, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনকে যথাযথভাবে পৃষ্ঠপোষণ।
১১। বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সকল শিক্ষার্থী বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক প্রতিযোগিতায় দেশে এবং বিদেশে অংশগ্রহণ করেন তাদের যথাযথভাবে পৃষ্ঠপোষণ এবং সহযোগিতা প্রদান।
১২। শিক্ষক নিয়োগঃ বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক অবস্থান এবং ডেমনেস্ট্রেশন ক্লাসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের রিপোর্ট নিয়ে মেধাগত সমন্বয় করে শিক্ষক নিয়োগ।
১৩। খেলার মাঠ এবং জিমনেশিয়াম ব্যবহার উপযোগী করে সংস্কার।
১৪। রাষ্ট্রের মূলনীতি এবং সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক কাজে জড়িত এবং পৃষ্ঠপোষণকারী শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান হিমেল তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানান, সাম্প্রতিক সময়ের সাপেক্ষে সুবিবেচনাপ্রসূত উপরোক্ত দাবীসমূহ মাননীয় উপাচার্য মহোদয়ের বিবেচনাধীন করার জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ জানিয়েছি। এবং মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং চ্যান্সেলর,অত্র বিশ্ববিদ্যালয় ,মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়,মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়,জাপান দূতাবাস, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ এর নিকটও অনুলিপি প্রেরণ করা হয়েছে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

শিক্ষা এর অারো খবর