রামপাল প্রকল্পের সমালোচনাকারীরা কেউ বিশেষজ্ঞ নন দাবী বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর
রামপাল প্রকল্পের সমালোচনাকারীরা কেউ বিশেষজ্ঞ নন দাবী বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১০-২৮ ০১:২৮:৪৯
প্রিন্টঅ-অ+


রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ সরকারের বিভিন্ন মেগা প্রকল্পের বিরোধিতাকারীদের সমালোচনা করেছেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি বলেছেন, ‘রামপাল প্রকল্প দেখতে ইউনেসকো থেকে যারা এসেছেন, তারা বিদ্যুৎ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ নন। আমাদের দেশের সমালোচনাকারীরাও এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ নন। তাদের কেউ অর্থনীতিবিদ, কেউ বা মাইক্রোবায়োলজিস্ট। অথচ তারাই এখন টেকলনোজি নিয়ে কথা বলছেন।’

বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকালে এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ায় নামে একটি পত্রিকার ১৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সিরডাপ মিলনায়তনে আয়োজিত এক গোলটেবিল আলোচনায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। গোল টেবিল আলোচনার বিষয় ছিল মেগা প্রজেক্ট ডিবেট।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জ্বালানি খাত আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। এখাতে বিনিয়োগ করতে অনেক ডেভেলপমেন্ট পার্টনার আসছে। আমাদের কাছে চয়েস আছে কোনটা নেবো, কোনটা নেবো না। এখানে অর্থ বড় না, মার্কেট রেডি। আমরা কোন মার্কেটে যাবো এটাই বড়।’

তিনি আরও বলেন, ‘বড় পুকুরিয়ায় প্রচুর গাছপালা আছে। সেখানে মাছেরও চাষ হচ্ছে। কিন্তু যেসব সমালোচনাকারী সেখানে যান তারা সানগ্লাস পড়ে থাকেন। তাদের চোখে এসব পড়ে না।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় রামপাল প্রকল্পের বিরোধিতাকারীদের প্রসঙ্গে নসরুল হামিদ বলেন, ‘এসব সমালোচনাকারী কারা। আমি তাদের প্রোফাইল ঘেঁটে দেখেছি, আসলে তারা সবাই পলিটিকালাইজডস।’ তিনি আরও বলেন, ‘পদ্মাসেতুর কাজ শুরু হওয়ার আগে অনেক সমালোচনা হয়েছে। কিন্তু কাজ শুরু হওয়ার পর এখন আর কেউ কথা বলছেন না।’

সমালোচনাকারীদের উদ্দেশে করে তিনি বলেন, ‘আপনারা পজিটিভ চিন্তা ভাবনা করেন। আসুন, সবাই মিলে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাই। ’

আলোচনায় কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. এম শামসুল আলম বলেন, ‘মেগা প্রকল্প মানে মেগা দুর্নীতি। বিদ্যুতের বেলায় এটা আরও বেশি প্রযোজ্য।’ রূপপুর পারমানবিক বিদুৎ প্রকল্প নিয়ে তিনি বলেন, ‘রূপপুর প্রকল্প নিয়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয় নিজেরাই বিতর্ক তৈরি করছে।’ এসময় তিনি এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার পত্রিকার সম্পাদক মোল্লাহ এম আমজাদ হোসেন। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ারের কনট্রিবিউটিং এডিটর ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার আবদুস সালেক। আলোচনায় আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ বিদুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, বুয়েটের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. কাজী বাইজিদ কবীর, বাপেক্স এর সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোর্তুজা আহমেদ ফারুক প্রমুখ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর