বিচার প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজেশন হচ্ছে
বিচার প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজেশন হচ্ছে
সংগীতা ঘোষ
২০১৫-১১-২৯ ০৪:৩৪:২৫
প্রিন্টঅ-অ+


প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, বিচার প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজেশনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে অচিরেই সিলেটের সঙ্গে হাইকোর্টের অনলাইন সংযোগ স্থাপন করা হবে। তিনি বলেন, সিলেট থেকেই বিচার বিভাগের ডিজিটালাইজেশনের কার্যক্রম শুরু হবে এবং এটি করা হলে ঢাকায় বসে প্রতিদিন সিলেট আদালতের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করা যাবে। ডিজিটালাইজেশনের দ্বিতীয় ধাপে, ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাক্ষ্যগ্রহণের বিষয়টি সংযোজন প্রক্রিয়াধীন আছে। আর তা হলে বিদেশে বসেও বাদী কিংবা সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করতে পারবেন উল্লেখ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, এক্ষেত্রে প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন।

এসকে সিনহা বলেন, সিলেটের প্রবাসীদের মামলার কাজে দেশে আসতে হবে না। তারা লন্ডনে বসেই মামলায় সাক্ষ্য বা বক্তব্য উপস্থাপন করতে পারবেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, প্রকৃতপক্ষে আইনজীবীদের যথাযথ অংশগ্রহণ ছাড়া আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে প্রায় ৩১ লাখ মামলা বিচারাধীন আছে। এর সঙ্গে প্রতিদিন-ই যুক্ত হচ্ছে নতুন মামলা। এই মামলা জট কমিয়ে আনতে নানামুখী উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। আমরা চাই, ন্যায় বিচার নিশ্চিত করার পাশাপাশি মামলার দ্রুত নিষপত্তি।

প্রধান বিচারপতি দেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সম্পন্নের বিষয়ে বলেন, কোনরূপ বিদেশি সহায়তা ছাড়াই একক প্রচেষ্টায় যুদ্ধাপরাধের বিচার সমপন্ন করেছে বাংলাদেশ। বিষয়টি বিশ্বের বুকে অনন্য নজির মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক ক্ষমতাধর দেশের খ্যাতিমান বিচারকরাও এ বিচার প্রক্রিয়া সুষ্ঠুভাবে সমপন্ন করায় আশ্চর্য হয়েছেন। এমনকি বিশ্বের পরাশক্তি হিসেবে পরিচিত একাধিক দেশের বিচার বিভাগের সর্বোচ্চ ব্যক্তিরাও এই একক প্রচেষ্টায় যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়া সমপন্ন করার বিষয়টির উচ্চসিত প্রশংসা করেছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট আদালত চত্বরে জেলা আইনজীবী সমিতির বার্ষিক নৈশভোজ, বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ, নবীন আইনজীবীদের বরণ ও সিলেট বারের সদস্যদের মেধাবী সন্তানদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

প্রধান বিচারপতি তার সামপ্রতিক বিদেশ সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, সমপ্রতি অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রধান বিচারপতিদের আন্তর্জাতিক সম্মেলনে একাধিক উন্নত দেশের বিচারপতি বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধের বিচারের প্রশংসা করেছেন। অনেকেই এই বিচার প্রক্রিয়া সমপর্কে অবহিত হতে বাংলাদেশ সফরের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেন, আগামী মাসেই রাশিয়ার প্রধান বিচারপতির বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা রয়েছে।


সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট একেএম শমিউল আলমের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সমপাদক এডভোকেট মোস্তফা দিলওয়ার আল আজহারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস প্রেসিডেন্ট এডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার, বার কাউন্সিলের সদস্য এডভোকেট কাইমুল হক রিংকু, সিলেটের জেলা ও দায়রা জজ মনির আহমদ পাটোয়ারী ও সিলেট মহানগর দায়রা জজ আকবর হোসেন মৃধা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সমপাদক এডভোকেট অশোক পুরকায়স্থ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর