টয়োটা প্রকৌশলীদের ‘কিরোবো মিনি’ রোবট কি মানুষের বিকল্প!
টয়োটা প্রকৌশলীদের ‘কিরোবো মিনি’ রোবট কি মানুষের বিকল্প!
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-১০-২২ ১৬:৪১:০৭
প্রিন্টঅ-অ+


২০৫০ সালে জাপানে ৭০ বছরের বেশি বয়স্ক মানুষের সংখ্যা ১৫-৩০ বছর বয়সীদের দ্বিগুণ হবে। জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড পপুলেশন প্রসপেক্টস ২০১৫ সংস্করণে এটা অনুমান করা হয়েছে। এ থেকেই বোঝা যায়, দেশটিতে নতুন শিশু জন্মের হার কী হারে কমে যাচ্ছে। এর মূল কারণ জাপানে অবিবাহিত নারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়া ও অভিবাসন সমস্যা।

আশঙ্কাজনক এই জনসংখ্যা হ্রাস ঠেকাতে গবেষকেরা নতুন একটি উপায় খুঁজে পেয়েছেন। জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে মানুষকে উৎসাহিত করতে ‘রোবট সন্তান’ পালনের কথা বলছেন। এতে নাকি জাপানিরা সন্তান গ্রহণে উৎসাহিত হবেন।

কিন্তু রোবটের সঙ্গে রক্তমাংসের জলজ্যান্ত সন্তানের তুলনা কীভাবে চলে? ইউটিউবে দেওয়া এক ভিডিওতে ‘ইয়োটারো’ নামের রোবট শিশু দেখানো হয়েছে। মুখের অবয়ব মানবশিশুর অনুকরণে তৈরি, তবে দেখতে রোবটের মতোই। আবেগের তারতম্যের সঙ্গে সঙ্গে তার প্রকাশভঙ্গিরও তারতম্য হয়। রোবট শিশুকে ছুঁয়ে দিলে সেটি নিজের প্রতিক্রিয়া দেখাতে পারে। নানা রকম ভাব প্রকাশ করতে পারে, এমনকি অসুস্থতাও প্রকাশ করতে পারে। সম্প্রতি টয়োটার প্রকৌশলীরা ‘কিরোবো মিনি’ নামের রোবট বানিয়েছেন, যা মানুষের মতোই আবেগ প্রকাশ করতে পারে।

এ ধরনের রোবট ব্যবহারে নৈতিকতা ও প্রযুক্তিগত কিছু বিষয় সামনে এসেই যায়। অন্যদিকে একটি জাতির জন্য প্রয়োজনের তুলনায় জন্মহার কমে যাওয়াও একটি গুরুতর সমস্যা। রোবট বেবি হয়তো এর প্রত্যক্ষ সমাধান নয়, কিন্তু এর আবির্ভাব মানুষকে বোঝাতে সক্ষম হবে যে জন্মহার হ্রাস একটি বাস্তব সমস্যা, দ্রুত যার সমাধান করা উচিত।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ফিচার এর অারো খবর