হাসিনা-মোদী দ্বিপাক্ষিক বৈঠক, জঙ্গিবাদ দমনে শেখ হাসিনার প্রশংসায় মোদী
হাসিনা-মোদী দ্বিপাক্ষিক বৈঠক, জঙ্গিবাদ দমনে শেখ হাসিনার প্রশংসায় মোদী
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১০-১৭ ১১:৫৫:০৬
প্রিন্টঅ-অ+


সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একান্ত বৈঠকে এই প্রশংসা করেন মোদি। একই সঙ্গে তিনি বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কেও জানতে চান। পররাষ্ট্রসচিব এম শহীদুল হক এ কথা জানিয়েছেন।

ভারতের গণমাধ্যম কর্মীদের শহীদুল হক বলেন, ‘সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে বৈঠক হয়েছে। তাতে বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বাংলাদেশে যেভাবে সন্ত্রাস ও জঙ্গি মোকাবিলা করা হচ্ছে, তার প্রশংসা করেছেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি এ ব্যাপারে শেখ হাসিনার কাছে বিস্তারিত জানতে চেয়েছেন। এবং আমাদের প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি ব্যাখা করেছেন। শেখ হাসিনা বলেছেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে সরকার সমন্বিত পদক্ষেপ নিয়েছে। তাতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও অভিভাবক থেকে শুরু করে সম্পৃক্ত করা হয়েছে ধর্মীয় নেতাদেরও।’
পররাষ্ট্রসচিব বলেন, ‘দুই নেতার মধ্যে বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আলোচনা হয়েছে সার্ক নিয়েও। দুই জনই একমত হয়েছেন যে, প্রটোকলের বাইরেও দুই দেশের শীর্ষ কূটনীতিকদের মধ্যে আরও বৈঠক হওয়া উচিৎ।’

সার্কের বিষয়ে কী ধরনের আলাপ হয়েছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শহীদুল হক বলেন, ‘শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি একমত যে, এখন যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে, তাতে সার্ক সম্মেলন হওয়ার কোনও অর্থ নেই। এবং এ বিষয়ে যে দুই দেশই অভিন্ন মত পোষণ করে, সে ব্যাপারেও দুই প্রধানমন্ত্রীর কথা হয়েছে।’ তবে তাদের মধ্যে সার্কের ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনও আলাপ হয়নি বলে জানান তিনি।

পররাষ্ট্র সচিবের কাছে সাংবাদিকরা জানতে চান, তিস্তা চুক্তি নিয়ে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে কোনও আলোচনা হয়েছে কিনা। জবাবে তিনি বলেন, ‘তিস্তা নিয়েও কথা হয়েছে।’ তবে কী আলোচনা হয়েছে তা তিনি বলেননি। কেবল বলেছেন, ‘তিস্তা নিয়ে বাংলাদেশ আশাবাদী।’

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর