১০৩ দিনে কতটুকু এগোল গুলশান হামলার তদন্তের?
১০৩ দিনে কতটুকু এগোল গুলশান হামলার তদন্তের?
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-১০-১০ ১৯:৪৫:১৭
প্রিন্টঅ-অ+


রাজধানীর গুলশানে জঙ্গি হামলার তদন্তের ১০০ দিন অতিবাহিত হতে যাচ্ছে আজ (সোমবার)।গত ১ জুলাই গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারিতে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এর দুদিন পর থেকে আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু করে নবগঠিত কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। মামলার তদন্তে প্রথমেই উঠে আসে নব্য জেএমবির নাম। শুরু হয় নিবিড় পর্যালোচনা ও অনুসন্ধান। গুলশান হামলার ১০৩ দিন অতিবাহিত হলেও তদন্ত সংস্থা সিটিটিসি-এর ১০০ দিনের তদন্তে এই ঘটনার বিভিন্ন বিষয়ের রহস্য উন্মোচন হয়েছে।

গুলশান হামলায় অংশ নেয়া ৫ হামলাকারীসহ এখন পর্যন্ত অন্তত ২৪-২৫ জনের নাম এসেছে। হামলার বিভিন্ন পর্যায়ে তারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।এই মামলায় গ্রেফতার রয়েছে দুজন। তাদের একজন জিম্মি অবস্থায় উদ্ধার হওয়া হাসনাত করিম ও অপরজন কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানা থেকে গ্রেফতার হওয়া রাকিবুল হাসান রিগ্যান। রিগ্যান ইতোমধ্যে দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছে।
গুলশান হামলায় দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ দেশি-বিদেশি ২২ নাগরিক নিহত হন।পরে সেনা কমান্ডো অভিযানে নিহত হয় পাঁচ হামলাকারীসহ ছয় জন। এই হামলার পরপরই জঙ্গিবাদবিরোধী অভিযান নিয়ে নড়েচড়ে বসে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থা। অর্থের যোগানাদাতা থেকে শুরু করে অস্ত্র সরবরাহকারী,হামলার মাস্টারমাইন্ড,গ্রেনেড সরবরাহকারীদের নাম, হামলাকারীদের কারা প্রশিক্ষণ দিয়েছে, কোথায় কোথায় প্রশিক্ষণ হয়েছে এবং হামলার সমন্বয়কসহ বিস্তারিত রহস্য উদ্ঘাটন করেছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

গুলশান হামলা মামলার তদন্তের অন্যতম তদারক কর্মকর্তা কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেছেন, গুলশান হামলার তদন্তে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত মাস্টারমাইন্ড, অর্থ ও অস্ত্রের যোগানদাতাসহ অনেককেই সনাক্ত করা হয়েছে। খুব শিগগিরই এই মামলার চার্জশিট আদালতে জমা দেওয়া হবে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর