ঘড়িবালক আহমেদের ক্ষতিপূরণ দাবি
ঘড়িবালক আহমেদের ক্ষতিপূরণ দাবি
সংগীতা ঘোষ
২০১৫-১১-২৪ ১৯:০৪:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+


১৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে টেক্সাসের ঘড়িবালক আহমেদ মোহামেদের পরিবার। সোমবার আরভিং সিটির মেয়র ও স্থানীয় থানার অফিসার বরাবর চিঠি পাঠিয়ে এই ক্ষতিপূরণ দাবি করেন তার আইনজীবী।

দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে তার আইনজীবীর বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, টেক্সাসের কিশোর আহমেদ মোহামেদের নিজের তৈরি একটি ঘড়িকে শিক্ষক ভুলক্রমে বোমা ভেবে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়ার কারণে তার পরিবারের পক্ষ থেকে মেয়র ও পুলিশের কাছে ওই ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।

স্থানীয় একটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত মোহামেদের পরিবারেরে একজন আইন কর্মকর্তার ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, আগামী ৬০ দিনের মধ্যে টেক্সাসের আরভিং সিটির মেয়রকে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ও স্থানীয় জেলা স্কুলকে পাঁচ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এর মধ্যে ক্ষতিপূরণ দিতে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার কথা বলা হয়েছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, ঘটনার পর মানুষিকভাবে বিপর্যস্ত মোহামেদ কাতারভিত্তিক একটি সংস্থার অধীনে শিক্ষিাবৃত্তি নিয়ে কাতারে চলে যায়। ওই ঘটনার কারণে তার পরিবারের সদস্যরাও শারীরিক ও মানসিকভাবে ক্ষতির শিকার হন।

সেপ্টেম্বরে নবম শ্রেণীর ছাত্র আহমেদ পেন্সিলবক্স দিয়ে একটি ডিজিটাল ঘড়ি তৈরি করে। পরবর্তীতে তা শিক্ষককে দেখাতে গেলে তিনি ওটাকে বোমা ভেবে আহমেদকে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

আটকের পর আহমেদের ১৪ বছর বয়সী বোন নাসার একজন বিজ্ঞানীর সঙ্গে তোলা আহমেদের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পোস্ট করলে তা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে এবং বিষয়টি সংবাদের শিরনামে পরিণত হয়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর