বাংলাদেশ খেলবে অনিকেতের ডিজাইন করা জার্সিতে
বাংলাদেশ খেলবে অনিকেতের ডিজাইন করা জার্সিতে
২০১৫-১১-০৬ ১৫:৩৮:২৮
প্রিন্টঅ-অ+


অনিকেতের ডিজাইন করা জার্সি পরেই একদিনের ক্রিকেটে মাঠে নামবে টাইগাররা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন সীমিত ওভারের সিরিজ দিয়েই এর যাত্রা হতে যাচ্ছে।

হোটেল সোনারগাঁওয়ে হয়ে গেল রবি’র ‘অদম্য জার্সি ডিজাইন কনটেস্ট’র গ্র্যান্ড ফিনালে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য সেরা জার্সি নির্বাচনের লক্ষ্যেই এটি আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার (০৫ নভেম্বর) রাতে জাকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সেরা জার্সি ডিজাইনার নির্বাচিত হন অনিকেত ভট্টাচার্জ।

পাঁচজনের বিচারক প্যানেল ১১টি জার্সি নির্বাচন করেন। এর মধ্যে অনিকেতের জার্সিটিই সেরা হিসেবে নির্বাচিত হয়। বিচারক প্যানেলে ছিলেন খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী মোস্তফা মনোয়ার, বিশিষ্ট ফ্যাশন ডিজাইনার বিবি রাসেল, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ওয়ার্কিং কমিটির সদস্য এনায়েত হোসেন সিরাজ, বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস ও রবি’র ইউপি জনপ্রিয় মডেল নোভেল।

এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, ‍আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) সিইও ডেভিড রিচার্ডসন, চ্যানেল আই এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ফরিদুর রেজা সাগর, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক কোচ ও জিম্বাবুয়ে দলের বর্তমান কোচ ডেভ হোয়াটমোর।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচ, ক্রিকেটাররা সহ সফরকারী জিম্বাবুয়ে দলও অতিথি হিসেবে এতে অংশ নেয়।

বিজয়ী অনিকেতের ‍হাতে ট্রফি তুলে দেন নাজমুল হাসান পাপন। আর পুরস্কার হিসেবে পাঁচ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেন রবি’র সিইও সুপন বিরাসিংহে।

এক প্রতিক্রিয়ায় রবি’র চিপ অপারেটিং অফিসার মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘রবি একটা অদম্য নেটওয়ার্ক এবং তারা অদম্য টিমের সঙ্গে কাজ করছে। এটার সাথে সাধারণ মানুষকে সংযুক্ত করে রবি এই জার্সি কনটেস্টের উদ্যোগটি নেয়। এটি শুধু জার্সিই নয়, এটি হচ্ছে জ্বলে ওঠার মন্ত্র। এটি প্রেরণা হয়ে ১৬ কোটি মানুষের জ্বলে ওঠার শক্তি হিসেবে কাজ করবে। ভবিষ্যতে আমরা ক্রিকেটের উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করব। এ উদ্যোগটি তারই একটি অংশ। এ আয়োজন করার পেছনে বিসিবি অনেক সহায়তা করেছে। এজন্য বিসিবি প্রেসিডেন্টকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।’

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘বাংলাদেশের মতো এমন ক্রিকেট পাগল মানুষ আমি কোথাও দেখিনি। ক্রিকেটই এদেশের মানুষকে ‍ঐক্যবদ্ধ করেছে। এরকম একটি ক্রিয়েটিভ আইডিয়ার জন্য রবি’কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এর মাধ্যমে ক্রিকেটের সঙ্গে সাধারণ মানুষ সংযুক্ত হয়েছে। দেড় বছর আগে বাংলাদেশ দল যখন খারাপ খেলেছিল তখনও এদেশের মানুষ সাপোর্ট করেছিল।’

অনুষ্ঠানের শুরুতেই গান পরিবেশন করেন কন্ঠশিল্পী বাপ্পা মজুমদার ও কনা। এছাড়াও নির্বাচিত ১১ জনের জার্সি পরে র‌্যাম্প শো পরিবেশন করেন নারী-পুরুষ মডেলরা। এক কথায়, সোনারগাঁওয়ে জাকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে কোনো কিছুরই যেন কমতি ছিল না। সবার মাঝেই উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনা বিরাজ করে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ক্রীড়া এর অারো খবর