বকেয়া পরিশোধে ২ মাস সময় পেল সিটিসেল
বকেয়া পরিশোধে ২ মাস সময় পেল সিটিসেল
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-০৮-৩০ ০৬:৫৫:২৬
প্রিন্টঅ-অ+


সরকারের পৌনে পাঁচশ কোটি টাকার বকেয়া পরিশোধ করার জন‌্য সর্বোচ্চ আদালতের কাছ থেকে দুই মাস সময় পেয়েছে বন্ধের প্রক্রিয়ায় থাকা বাংলাদেশের সবচেয়ে পুরনো মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেল।

সোমবার সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে গঠিত পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। বেঞ্চের অন্য সদস্যরা হলেন বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী, বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মোহাম্মদ বজলুর রহমান। এ সময় পাওনা টাকা দুই ভাগে ভাগ করে প্রথম মাসে দুই-তৃতীয়াংশ এবং পরবর্তী মাসে বাকি টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়েছে। এছাড়া গত ১৭ আগস্টের পর থেকে প্রতিদিন যে ১৮ লাখ টাকা সিটিসেলের কাছে পাওনা হচ্ছে বিটিআরসির, তা অনতিবিলম্বে পরিশোধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যথায় বিটিআরসি যে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারবে বলে জানিয়েছেন আপিল বিভাগ।

এ সময় সিটিসেলের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ এবং বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস ও রেজা-ই রাকিব। এ বিষয়ে রেজা-ই রাকিব বলেন, হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করার পর আজ আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ সংশোধন করে কয়েকটি নির্দেশনা দেন। নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী দুই মাসের মধ্যে বিটিআরসির ৪৭৭ কোটি টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়েছে। এদিকে, সিটিসেলের বিলুপ্তি সংক্রান্ত আবেদনের শুনানির জন্য আগামী ৪ সেপ্টেম্বর দিন ঠিক করেছেন হাইকোর্ট। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই টাকা পরিশোধ করলে সিটিসেল কার্যক্রম চালাতে পারবে। তা না হলে বিটিআরসিকে যে কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে আপিল বিভাগ।

দেশের প্রথম মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের গ্রাহক সংখ্যা কমতে কমতে এখন দুই লাখের চেয়ে কম। টু-জি তরঙ্গ ফি, বার্ষিক লাইসেন্স ফি, বার্ষিক তরঙ্গ ফি, রেভিনিউ শেয়ারিংসহ বিভিন্ন খাতে তাদের কাছে সরকারের পাওনা দাঁড়িয়েছে ৪৭৭ কোটি ৫১ লাখ টাকা। এছাড়া গত ১৭ আগস্ট সিটিসেলের তিন কোটি ৬৬ লাখ ৩৩ হাজার মার্কিন ডলার (প্রায় ২৯৩ কোটি টাকা) টাকা দাবি করে চীনের ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান চায়না ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর