৮ সেপ্টেম্বর থেকে লঞ্চের ঈদ স্পেশাল সার্ভিস
৮ সেপ্টেম্বর থেকে লঞ্চের ঈদ স্পেশাল সার্ভিস
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-০৮-২৬ ০৫:৫২:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+


ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে ৮ সেপ্টেম্বর থেকে লঞ্চের স্পেশাল সার্ভিস শুরু হচ্ছে।

তবে যাত্রীর চাপ বেশি থাকলে ৭ সেপ্টেম্বর থেকেই এ সার্ভিস চালু হতে পারে বলে নিশ্চিত করেছেন অভ্যন্তরীণ যাত্রী পরিবহন সংস্থার (যাপ) সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু।

স্পেশাল সার্ভিস উপলক্ষে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি বেসরকারি লঞ্চ কোম্পানি অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু করেছে।

সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, ঈদুল ফিতরের মতো ঈদুল আজহায় বরিশাল-ঢাকা রুটে সরাসরি ১৭টি লঞ্চ চলাচল করবে। এছাড়া ছয়টি লঞ্চ ঢাকা-বরিশালের সঙ্গে ঝালকাঠি ও চাঁদপুরের যাত্রী পরিবহন করবে।

স্পেশাল সার্ভিসে প্রতিদিন মোট ২৩টি লঞ্চ চলাচল করবে।

বরিশাল-ঢাকা নৌরুটে যে ১৭টি লঞ্চ চলাচল করবে সেগুলো হলো- পারাবত কোম্পানির পাঁচটি, সুন্দরবন কোম্পানির তিনটি, সুরভী কোম্পানির তিনটি, কীর্তনখোলার দুটি, এমভি টিপু, এমভি ফারহাত, কালাম খান ও দ্বীপরাজ।

এছাড়া বরাবরের মতো দিবা সার্ভিসের গ্রিন লাইন ওয়াটার ওয়েজের দুটি জাহাজ এ রুটে চলাচল করবে।

এদিকে ঈদ স্পেশাল সার্ভিসকে কেন্দ্র করে এমভি কীর্তনখোলা ও সুরভী কোম্পানি অগ্রিম টিকেট ছেড়েছে।

এছাড়া আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে বিআইডব্লিউটিসি’র জাহাজের অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু হবে বলে জানা গেছে।

এমভি কীর্তনখোলা লঞ্চের মালিক মো. মঞ্জুরুল আহসান ফেরদৌস বলেন, বরিশাল-ঢাকা নৌপথে ভ্রমণ আরামদায়ক হওয়ায় ঈদে যাত্রী বেশি থাকে। তাই এ বছর আগেভাগেই আমাদের লঞ্চের টিকেট বিক্রি শুরু হয়েছে।

অপর দিকে সুরভী লঞ্চ কোম্পানির টিকিটের আবেদন গ্রহণ শেষ হয়েছে। আগামী দু-একদিনের মধ্যেই টিকিট ছাড়া হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। একইভাবে পারাবত, টিপু, ফারহানসহ এই রুটে সব লঞ্চের অগ্রিম টিকিট বিক্রির প্রস্তুতি শেষ হয়েছে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর