টেলিটককে স্বাবলম্বী করতে এক বছর সময় চান তারানা
টেলিটককে স্বাবলম্বী করতে এক বছর সময় চান তারানা
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-০৮-১১ ২৩:০৩:৫২
প্রিন্টঅ-অ+


সরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটকের নেটওয়ার্কের উন্নতি করাসহ সকল সমস্যার সমাধান করে আগামী এক বছরের মধ্যে এটিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে উন্নীত করার কথা জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশানে টেলিটক কার্যালয়ে ‘টেলিটকের মাধ্যমে বিকাশ লেনদেন’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান। এসময় তিনি বলেন, আমি জানি, দেশের মানুষ টেলিটক ব্যবহার করতে চান। কিন্তু নেটওয়ার্ক ও সার্ভিস ভালো না হওয়ার কারণে তারা টেলিটক ব্যবহার করছেন না। টেলিটকের উন্নত সেবা নিশ্চিতে একটি ‘কার্যকর পরিকল্পনা (অ্যাকশন প্ল্যান)’ করা হয়েছে। এ অ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়নে খরচ হবে প্রায় চার হাজার কোটি টাকা। এ পরিকল্পনার বেশ কয়েকটি উন্নয়ন কাজ চলতি অর্থবছরের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে। এরই ধারাবাহিকতায় চলতি অর্থবছরে দেশের মহাসড়কগুলোয় থ্রিজি সম্প্রসারণ ও মহানগরসহ সব জেলা শহরে থ্রিজি সেবা নিশ্চিত করা হবে।

আর গ্রামাঞ্চলে সম্প্রসারণ করা হবে টুজি সেবা। এছাড়া অ্যাকশন প্ল্যান অনুযায়ী, এ বছর সব জেলা শহরে কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস স্থাপন করা হবে।

চলতি অর্থবছরের মধ্যে আরো ৩০ লাখ সংযোগ বাড়ানোর কথা উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, অ্যাকশন প্লানের আওতায় এসব লক্ষসহ দুই অর্থবছরের মধ্যে মোট ১৫টি এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবে টেলিটক। চলতি অর্থবছর ১০টি এবং আগামী অর্থবছর বাকি এজেন্ডাগুলো বাস্তবায়নের মাধ্যমে টেলিটক লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রতিমন্ত্রী।

তারানা আরও জানান, গ্রাহকদের জন্য নিত্যনতুন মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন চালু করাসহ আরও কয়েকটি সেবা এ বছরের মধ্যেই নিয়ে আসতে চায় অপারেটরটি। তরুণ গ্রাহকদেরকে আকৃষ্ট করতে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের ওপর জোর দেয়া হবে। তাছাড়া কয়েকটি বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী অফিসের এটুআই-এর সঙ্গে পার্টনারশিপে কাজ করবে টেলিটক। দ্বিতীয় ধাপের পরিকল্পনা হিসেবে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের মধ্যেই চতুর্থ প্রজন্মের মোবাইল প্রযুক্তির সেবা চালু করবে টেলিটক।
নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর বদল নিয়ে তিনি জানান, ডিসেম্বরে গ্রাহকরা মোবাইল ফোন পোর্টেবিলিটির সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে নিজের অ্যাকাউন্টে ১০০ টাকা বিকাশের মাধ্যমে রিচার্জ করে ‘টেলিটকের মাধ্যমে বিকাশ লেনদেন’ সেবা উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী। এসময় টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গিয়াস উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

২০০৪ সালের ২৯ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করে দেশের একমাত্র সরকারি মোবাইল ফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান টেলিটক। নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বিটিআরসির সর্বশেষ হিসাব মতে দেশে ১৩ কোটি ১৩ লাখ ৭৬ হাজার মোবাইল ফোন গ্রাহক রয়েছে। এর মধ্যে টেলিটকের গ্রাহক সংখ্যা ৪৪ লাখ ৯০ হাজার। ৫ কোটি ৬৯ লাখ গ্রাহক নিয়ে সবার উপরে আছে গ্রামীণফোন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর