গণশুনানিতে বিদ্যুতের দাম না বাড়ানোর দাবি বিটিএমএ’র
গণশুনানিতে বিদ্যুতের দাম না বাড়ানোর দাবি বিটিএমএ’র
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-০৮-০৭ ২১:৪৯:২৭
প্রিন্টঅ-অ+


বিদ্যুতের দাম না বাড়াতে সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন তৈরি পোশাক খাতের অন্যতম সংগঠন বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএমএ)।
রবিবার দুপুরে সচিবালয়ে বিটিএমএ’র একটি প্রতিনিধিদল বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজমের সঙ্গে বৈঠক করে। সেসময় মন্ত্রীর কাছে এ দাবি জানান সংগঠনটির নেতারা।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের সচিব কাদের সরকার, এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি সালমান এফ রহমান, বিটিএমএ’র সভাপতি ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা তপন চৌধুরী, বিকেএমএ’র মতিন চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে তপন চৌধুরী জানান, বস্ত্রখাতের সব মিল চলে ক্যাপটিভ পাওয়ারে। মিলগুলোকে উৎসাহিত করতে শুরু থেকেই আমরা প্রণোদনা পেয়ে আসছি। শুরুতে এ খাতের জন্য প্রতি কিউবিক ঘনমিটার গ্যাসের ট্যারিফ ছিল ২ টাকা ৮২ পয়সা। পরে সেটি করা হয় ৪ টাকা ১৮ পয়সা। এক বছরের ব্যবধানে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে করা হয়েছে ৮ টাকা ৩৬ পয়সা।

তিনি আরও বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই জানতে পেরেছি এ হার আরও বাড়াতে পাওয়ার রেগুলেটরি কমিশন গণশুনানি শুরু করেছে। আমরা বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পেরেছি, এ হার করা হবে ১৯ টাকা ২৬ পয়সা। এটি যেন না করা হয়। এ অনুরোধ জানাতেই আমরা মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করতে এসেছি।

বিটিএমএ’র সভাপতি বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়া, গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গিহামলা এবং পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত সরকারের বস্ত্রখাতে বিশাল প্রণোদনা ঘোষণা বাংলাদেশের বস্ত্রখাতের জন্য চ্যালেঞ্জ। এই তিন চ্যালেঞ্জকে মোকাবিলা করে আমাদের টিকে থাকা খুবই কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। এরপর যদি ট্যারিফ বাড়ানো হলে আমাদের অবস্থান কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা আমরা বলতে পারছি না।

ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন দাবির উত্তরে বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং সেনসিটিভ। বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করে বস্ত্রখাতের এ সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নেওয়া হবে। প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও পরামর্শ করা হবে বলে জানান তিনি।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

অর্থনীতি এর অারো খবর