আবারও ইন্টারনেট বন্ধের মহড়া
আবারও ইন্টারনেট বন্ধের মহড়া
২০১৬-০৮-০৫ ০০:৫৪:০১
প্রিন্টঅ-অ+


আগামীতে ছুটির দিনে ইন্টারনেট বন্ধের আরও মহড়া হবে বলে জানিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। বিটিআরসি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান আহসান হাবিব খান সাংবাদিকদের বলেন, এটি একটি ‘চলমান প্রক্রিয়া’।

গুলশান হামলার মত বিশেষ পরিস্থিতিতে জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের ইন্টারনেটে যোগাযোগের পথ বন্ধের জন্য গত মঙ্গলবার প্রথম প্রজরে রাজধানীর একটি বাণিজ্যিক এলাকায় এই মহড়া হয়। টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির নির্দেশনায় ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ও মোবাইল ফোন অপারেটররা এই মহড়ায় অংশ নেয়। আগামীতে ছুটির দিনে এ ধরনের মহড়া হবে বলে উল্লেখ করেন বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান আহসান হাবিব। গ্রাহকের যাতে সমস্যা না হয় সেজন্য এই মহড়া রাতে করা হবে। কোন এলাকায় ওই মহড়া হয়েছে, তা বিটিআরসি প্রকাশ না করলেও তা রমনা এলাকায় হয় বলে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়।

ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক তথ্য নিয়ে একটি মানচিত্র (ওয়েব বেইজ ইন্টার অ্যাকটিভ জিআইস) চালু করা উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আহসান হাবিব খান বলেন, রাত ১টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত মহড়া হয়েছিল এবং টেলিকম অপারেটররা তাতে ছিলেন। নিজেদের সক্ষমতা যাচাই করতেই এ ধরনের মহড়া করা হচ্ছে।

গত ১ জুলাই রাতে একদল অস্ত্রধারী তরুণ গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালালে দেশি-বিদেশি অতিথিরা ভেতরে আটক পড়েন। ওই পরিস্থিতিতে জঙ্গিদের যোগাযোগের পথ বন্ধ করতে গুলশান ২ নম্বর সেকশনের ৭৯ নম্বর সড়ক ও আশপাশের ব্রডব্যান্ড সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হলেও মোবাইল ইন্টারনেট চালু থাকে।

সেই রাতে ক্যাফের জঙ্গিরা বিশেষ একটি অ্যাপ ব্যবহার করে বাইরে যোগাযোগ করেছিল বলে পরে গণমাধ্যমে খবর আসে। কিন্তু আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীও মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করায় সে সময় মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করা হয়নি। মোবাইল যোগাযোগ ঠিক রেখে ডাটা ট্রান্সফার বন্ধ রাখা সম্ভব কি না- এ নিয়ে পরে বিভিন্ন মহলে আলোচনা হয়। এ প্রেক্ষাপটেই বিটিআরসি মহড়া করার উদ্যোগ নেয়।

বিটিআরসি কার্যালয় থেকে ওই মহড়ার তদারকি করে সংস্থার বিশেষ একটি দল। তবে মহড়া সফল হয়েছে কি না সে বিষয়ে কোনো তথ্য বিটিআরসি কর্তারা প্রকাশ করেননি। বিটিআরসির হিসাবে জুন পর্যন্ত দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক ছিল ৬ কোটি ৩২ লাখের বেশি। এর মধ্যে ৫ কোটি ৯৬ লাখের বেশি গ্রাহক মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিবিধ এর অারো খবর