তৈরি পোশাক শিল্পকেও ছাড়িয়ে যাবে তথ্য-প্রযুক্তি খাত: জয়
তৈরি পোশাক শিল্পকেও ছাড়িয়ে যাবে তথ্য-প্রযুক্তি খাত: জয়
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-০৭-২৮ ০০:৩২:৫৬
প্রিন্টঅ-অ+


২০২১ সালের মধ্যে আয়ের দিক থেকে তথ্য-প্রযুক্তি খাত তৈরি পোশাক শিল্পকেও ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।
বুধবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁও এ সরকারের ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি বিভাগ ও বাংলালিংকের যৌথ উদ্যোগে দেশের প্রথম ‘আইটি ইনকিউবেটর’ উদ্বোধন ও আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ আগামীতে বিশ্বে তথ্য-প্রযুক্তির ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেবে আশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমি আত্মবিশ্বাস থেকে বলছি না। আমি জানি বাংলাদেশ আগামীতে তথ্য-প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেবে। এসময় তিনি আইটি খাতে বিভিন্ন সফলতা ও তরুণদের উদ্ভাবনী ক্ষমতার প্রশংসা করেন।

জয় বলেন, আমি আপনাদের আইডিয়া দেখেছি, আপনাদের কাজ দেখেছি, আমি এখন শুধু আত্মবিশ্বাসীই নই, আমি জানি বাংলাদেশ আগামীতে তথ্য-প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেবে।

তরুণদের উদ্দেশে তিনি বলেন, লক্ষ্য অর্জনে চর্চা করতে হবে, সময় দিতে হবে। কীভাবে প্রযুক্তিকে আরও সহজ করা যায় তার সমাধান খুঁজতে হবে। মেধা ও কল্পনাশক্তিকে কাজে লাগাতে হবে।
জয় বলেন, সরকার তরুণদের সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। আইটিসহ বিভিন্ন সেক্টরে তরুণদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ রাখা হয়েছে সেগুলোকে কাজে লাগাতে হবে।

তথ্য-প্রযুক্তি ও জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, আমাদের নতুন নতুন উদ্ভাবন করতে হবে, তথ্য-প্রযুক্তিকে ব্যবহার করতে হবে। আইটি বিশেষজ্ঞ তৈরি করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তার তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা জয় সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে বলেন, সরকার আইটি ইন্ড্রাস্ট্রিসকে গুরুত্ব দিচ্ছে। এজন্য সরকার পলিসি পরিবর্তন করেছে। আমরা সহজে সবার কাছে প্রযুক্তি পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ) এর সেক্রেটারি জেনারেল হাউলিন ঝাউ, বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ, আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ম্যানেজিং ডিরেক্টর হোসনে আরা বেগম, ভিম্পেলকমের সহ-প্রতিষ্ঠাতা অগি কে ফাবেলা, বাংলালিংকের সিইও এরিক অস্।

এর আগে সকালে কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ারে ‘আইটি ইনকিউবেটর’ এর উদ্ধোধন করেন ঢাকা উত্তরের মেয়র, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ও আইটিইউ’র জেনারেল সেক্রেটারি।

আইটি ইনকিউবেটর এই প্লাটফর্মের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে ‘কানেক্টিং স্টার্টআপস ২০১৬’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী প্রথম ১০ স্টার্টআপস মোবাইল ফোন অপারেটর বাংলালিংক এর পক্ষ থেকে পাবে ১ বছরের সহযোগিতা। এসব স্টার্টআপসকে কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ার সফটওয়ার টেকনোলজি পার্কে স্থাপিত আইটি ইনকিউবেশন সেন্টারে ১ বছরের জন্য বিনামূল্যে নির্ধারিত অফিস স্পেস, নিবেদিত মেন্টরশীপ এবং একসেলারেটর সাপোর্ট সহায়তা দেয়া হবে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর