দুদিনব্যাপী বিপিও সামিট আগামীকাল শুরু
দুদিনব্যাপী বিপিও সামিট আগামীকাল শুরু
ডেস্ক রিপোর্ট
২০১৬-০৭-২৭ ১৬:৫৭:২৯
প্রিন্টঅ-অ+


দেশে দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিপিও সামিট। শুরু হবে আগামীকাল, শেষ শুক্রবার। এ আয়োজনের বিস্তারিত তুলে ধরতে গতকাল আগারগাঁওয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার। আরো ছিলেন আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) সভাপতি আহমাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন প্রমুখ।

সম্মেলনের শুরুতে আয়োজনের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন জুনাইদ আহমেদ পলক। বলেন, বাংলাদেশে বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং বা বিপিও ব্যবসার অগ্রগতি সন্তোষজনক, যার বর্তমান বাজারমূল্য ১৮ কোটি ডলার। আমাদের পাশের দেশ ভারত, শ্রীলংকা ও ফিলিপাইন বিপিও সেক্টরে সবচেয়ে ভালো করেছে। বিপিও সেক্টরে সারা বিশ্বের ৬০ হাজার কোটি ডলারের মধ্যে ভারত ১০ হাজার কোটি, ফিলিপাইন ১ হাজার ৬০০ কোটি এবং শ্রীলংকা ২০০ কোটি ডলার আয় করছে। আমাদের লক্ষ্য ২০২১ সালের মধ্যে এ খাতে ১০০ কোটি ডলার আয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের যেসব দেশ বিপিও খাতে ভালো করেছে, তারা সবাই নিজেদের অভ্যন্তরীণ খাতের বিপিও শিল্পকে শক্তিশালী করেছে। যেমন ভারত চলতি বছর এ খাতে ১২ হাজার কোটি ডলার আয়ের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এর মধ্যে ২ হাজার কোটি ডলারই আসবে অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে। এর অর্থ হলো, বিশ্ব বাণিজ্যে ভালো করার জন্য আমাদের অভ্যন্তরীণ বিপিও খাতকেও শক্তিশালী করতে হবে। আমাদের দেশের কলসেন্টারগুলোর একটা বড় অংশ অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাচ্ছে। স্থানীয় অভিজ্ঞতার আলোক বিশ্ববাজারে নিজেদের সক্ষমতা তুলে ধরার জন্য এবারের সামিটের উপজীব্য হচ্ছে— স্থানীয় অভিজ্ঞতা, বৈশ্বিক ব্যবসা।
দ্বিতীয় বিপিও সামিটের লক্ষ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, এ সামিটের মাধ্যমে বিশ্বের কাছে বিপিও খাতে আমাদের দক্ষতার কথা তুলে ধরতে চাই। সেসঙ্গে চাই আমাদের স্থানীয় সরকারি-বেসরকারি সেক্টরে বিপিও খাতের সম্প্রসারণ। বাংলাদেশের বিপিও সেক্টরের সাফল্যের গল্পগুলো সবাইকে জানাতে চাই। দেশের তরুণদের কাছে এ সেক্টরকে অন্যতম একটি কাজের ক্ষেত্র হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিতে চাই।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার,আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব বনমালী ভৌমিক, বাক্যের সভাপতি আহমাদুল হক এবং সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন।
২৮ জুলাই বৃহস্পতিবার ঢাকার সোনারগাঁও প্যান প্যাসিফিক হোটেলে সকাল ১০টায় দুদিনের আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সজীব ওয়াজেদ জয় ছাড়া আরো উপস্থিত থাকবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান প্রকৌশলী শাহজাহান মাহমুদ, আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সংসদ সদস্য ইমরান আহমেদ প্রমুখ। সমাপনী দিনে দেশের বিপিও খাতের সফল উদ্যোক্তাদের পুরস্কৃত করা হবে।

এবারের আয়োজনে মোট ১২টি সেমিনার ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে। এ সেমিনার ও কর্মশালায় দেশ-বিদেশের প্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা অংশগ্রহণ করবেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে থাকবে বিশেষ আয়োজন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর