সরকারি নির্দেশ অমান্য করে দিব্যি চলছে আওয়ামী লীগের ফেসবুক!
সরকারি নির্দেশ অমান্য করে দিব্যি চলছে আওয়ামী লীগের ফেসবুক!
সংগীতা ঘোষ
২০১৫-১১-১৯ ১৫:৩০:১০
প্রিন্টঅ-অ+


সরকারি নির্দেশনায় সারাদেশে ফেসবুক বন্ধ থাকলেও এই নির্দেশনা মানছে না স্বয়ং শাসক দলটিই। দিব্যি চালানো হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজটি। এই পেইজ থেকে নিয়মিত পোস্টও দেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই পর্যবেক্ষণ করে এই ভেরিফাইড পেইজটিতে ঘণ্টায় ঘণ্টায় দেশের চলমান বিভিন্ন ইস্যুর আপডেট দেখতে পাওয়া গেছে।
এদিন সকালে কয়েকজন প্রবাসী পাঠক বিষয়টি নজরে আনেন। এরপর দেশের বাইরের একাধিক সূত্রের সাহায্যে বিষয়টি অনুসন্ধান করে নিশ্চিত হওয়া গেছে যে আওয়ামী লীগের ফেসবুক পেজটি সক্রিয় রয়েছে।

বাংলাদেশের স্থানীয় সময় দুপুর ১২ টা ২৫ মিনিটে একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়, যার শিরোনাম ‘জামায়াতের হরতালে সাড়া নেই।’

এর বিশ মিনিট আগে আরেকটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়। এটি ইংরেজিতে। সাকা চৌধুরীর একটি কার্টুন দিয়ে সেখানে লেখা হয়েছে,‘যুদ্ধাপরাধী সাকা চৌধুরী,অভিযোগ প্রমাণিত।’

এর দশ মিনিট আগে আরেকটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়। একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সংবাদ শেয়ার করে সেখানে লেখা হয়,‘জামায়াতের হরতাল রাজপথে নেই।’

এই স্ট্যাটাস দেওয়ার আরও কিছুক্ষণ আগে আওয়ামী লীগের এই পেইজ থেকে আরেকটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়। যার শিরোনাম ‘যুদ্ধাপরাধ ও বিএনপি জামাত জোট।’

এভাবে কিছুক্ষণ পরপর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের এই অফিসিয়াল পেজটি সক্রিয় রয়েছে ফেসবুকে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নূহ-উল আলম লেনিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,‘আমি বিষয়টি জানি না। না দেখে আমি কোনও মন্তব্য করবো না। আমি এই মুহুর্তে বাইরে আছি।’ বলেই ফোন সংযোগ কেটে দিলেও কিছুক্ষণ পর তিনি নিজেই ফোন করে এ প্রতিবেদককে পাল্টা প্রশ্ন করেন,‘বিটিআরসি যেখানে ফেসবুক বন্ধ করে দিয়েছে, সেখানে আপনারা আওয়ামী লীগের ফেসবুক পেইজ কিভাবে দেখছেন? এটা কি জেনুইন?’

এর উত্তরে প্রবাসী পাঠকদের কাছ থেকে তথ্য পাওয়া ও বিষয়টি নিজস্ব সূত্রের মাধ্যমে খতিয়ে দেখার কথা জানানো হলে তিনি মন্তব্য করেন,‘এটা কোনও কারসাজি হতে পারে।’ তবে পেইজটি দেশের বাইরে থেকে চালানো হচ্ছে কিনা এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি।

সরকারি আদেশে ফেসবুক বন্ধ করা হলেও দিব্যি চলছে আওয়ামী লীগের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজটি। বৃহস্পতিবার এই পেইজে দেওয়া হচ্ছে ঘণ্টায় ঘণ্টায় আপডেট। দেশের বাইরে থেকে যারা এই পেইজটি দেখতে পাচ্ছেন তাদের অনেকেরই প্রশ্ন পেইজটি কিভাবে চলছে তা নিয়ে। অনেকে পেইজটিতে এ ব্যাপারে তাদের কমেন্ট দিয়েছেন।

এদিকে কয়েকজন ফেসবুক ব্যবহারকারী এ বিষয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। এদের একজন ‘সরকার ফেসবুক বন্ধ করে দিয়ে নিজেরাই ভিপিএন প্রক্সি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর পেইজ থেকে স্ট্যাটাস দিচ্ছে’ বলেও অভিযোগ করেছেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিবিধ এর অারো খবর