শৌচাগার-এ তৈরি হবে বিশুদ্ধ পানি ও বিদ্যুৎ
শৌচাগার-এ তৈরি হবে বিশুদ্ধ পানি ও বিদ্যুৎ
২০১৬-০৭-২০ ০৬:৩৮:২৩
প্রিন্টঅ-অ+


শৌচাগারে পানি খরচের বিষয়টি সবারই জানা, কিন্তু যদি বলা হয় সেখানে গিয়ে করা যাবে বিশুদ্ধ পানি উৎপাদন? না মোটেই মজা করে বলা হচ্ছে না, এমন শৌচাগারের কথাই জানিয়েছেন গবেষকরা।


সম্প্রতি গবেষকরা বিশেষ ধরনের এই শৌচাগার তৈরি করেছেন। পানিশূন্য এই শৌচাগারে প্রতিবার ফ্ল্যাশ করার পর বিশুদ্ধ পানি আর বিদ্যুৎ তৈরি করবে।

ব্রিটেনের ক্র্যানফিল্ড ইউনিভার্সিটি’র বানানো এই ন্যানো মেমব্রেন টয়লেট বিল-মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের আয়োজিত রিইনভেন্ট দ্য টয়লেট চ্যালেঞ্জ-এর দ্বিতীয় ধাপে বিশেষ অনুদান লাভ করে। স্বনিয়ন্ত্রিত পানিশূন্য এই কমোড ব্যবহারে কোনো বিদ্যুৎশক্তি ব্যবহার হবে না। বিশ্বের আড়াইশ’ কোটি মানুষের মধ্যে বিশাল একটি অংশ, যারা স্বাস্থ্যসম্মত শৌচাগার ব্যবহার থেকে বঞ্চিত তাদের জন্য এটি ‘বৈপ্লবিক’ হবে বলে আশা করা হচ্ছে, জানিয়েছে স্কাই নিউজ।

গেটস ফাউন্ডেশন এর প্রতিযোগিতার নিয়ম অনুসারে, ন্যানো মেমব্রেনে শৌচাগারে কোন পানি, বিদ্যুৎ বা নিষ্কাশনী ব্যবস্থা ব্যবহার করা হয়নি। এই ব্যবস্থায় প্রথমে বর্জ্য টয়লেট বোলের নিচে রাখা ড্রামে জমা হয়। যখন ব্যবহারকারি শৌচাগার ঢাকনা বন্ধ করেন, তখন ড্রামটি ঘুরতে শুরু করে এবং আরেকটি ধারকে বর্জ্য স্থানান্তর করে। বর্জ্যের কঠিন অংশ ধারকের নিচে জমা হয় আর তরল অংশ আলাদা হয়ে প্রক্রিয়াজাতের জন্য আলাদা চেম্বারে জমা হয়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর